অবিবাহিত হওয়ার পরেও কেন বিবাহিতার তকমা পেয়েছিলেন অভিনেত্রী পায়েল দে!

News Desk

July 7, 2021 | 3:47 AM
blog image

পায়েল দে, নামটা এলেই বাংলা ধারাবাহিক ‘দুর্গা’ ও ‘বেহুলা’ র কথা প্রথম মাথায় আসে। যদিও পায়েল এই মুহূর্তে স্টার জলসার ‘দেশের মাটি’ ধারাবাহিকে কাজ করছেন। অবশ্য, একেবারে গোড়ার দিকে ‘সাহিত্যের সেরা সময়’ এর মাধ্যমে পায়েল তার অভিনয় জীবন শুরু করেন। কিন্তু, তারও আগে বিজ্ঞাপনে কাজ করতেন পায়েল দে। তখনকার সময়ের এক সত্য ঘটনা তুলে ধরলেন আর্ট ডিরেক্টর তরুণকান্তি বারিক। সোশ্যাল মিডিয়ায় লিখলেন অবিবাহিতা পায়েলের বিবাহিত হওয়ার কাহিনী।

আরও পড়ুন :   বেডরুম থেকে নিজের হট ছবি শেয়ার করলেন ‘খেলাঘর’-এর নায়িকা পূর্ণা, ঘুম উড়ছে নেটিজেনদের

পায়েল বরাবর দেখতে সুন্দর ছিলেন। গোল মুখ, পদ্মের মতন চোখ, এক ঢাল চুল, যেনো লক্ষ্মী প্রতিমা। তখন সদ্য বিজ্ঞাপনের কাজে পা বাড়িয়েছেন। এদিকে নতুন মুখের খোঁজ চলছে বেনারসীর বিজ্ঞাপনের জন্য । আগে সেই দোকানের মুখ ছিলেন মৈত্রেয়ী। এবার নতুন মুখ চাই। তখন পায়েল দে সেই নতুন মুখ হয়ে আসেন।

তরুণকান্তি লিখছেন, “মুশকিল হল কে হবে নতুন মডেল? মৈত্রেয়ীর চোখের সেই ভাষা, সেই এক্সপ্রেশন খুঁজে পাবো কোথায়? ভয় ছিল নতুন বিজ্ঞাপন পুরনোকে যদি ছাপিয়ে নাও যায় নিদেনপক্ষে যেন সমান সমান হয়। নইলে…।” পায়েল নতুন মুখ হওয়ার পর কাতারে কাতারে লোক আসে পায়েলের খোঁজ করতে। কেউ বিয়ে করতে চান, আবার কেউ ছেলের বউ বানাতে চান। একবার নাকি এক সুপুরুষ তার মায়ের সঙ্গে এসে সোজাসুজি বলেন পায়েলের সঙ্গে কথা বলবেন, এমনকি ফোন নম্বর নেবেন। এতটাই আবদার করে যে, সেদিন তিনি বলেছিলেন,”পায়েলের বিয়ে হয়ে গিয়েছে।”

আরও পড়ুন :   ৪ মাসে পা দিল ‘বস’ইউভান, একরত্তির আদরমাখা ছবি শেয়ার করলেন শুভশ্রী

সেদিনের পুরোনো স্মৃতি মন্থন করে তিনি স্বীকার করেছেন, “আর্ট ডিরেক্টর হিসেবে আমার পাওনা শুধু এটুকুই যে, সঠিক করেছিলাম মডেল নির্বাচন”।বর্তমানে দ্বৈপায়নর সঙ্গে সুখের সংসার তাঁর। ঘরে একটি সন্তানও আছে। ভরা সংসারী পায়েল। হ্যাঁ, আজ পায়েল সত্যি সত্যি বিবাহিতা, কিন্তু আগের মতন এখনও রূপে লক্ষ্মী।

আরও পড়ুন :   রাজকীয় বিয়ের পর হানিমুন সারতে দার্জিলিং গেলেন ইমন-নীলাঞ্জন! রইলো ছবি