“আমার দাদা শরীর ছুঁতে চেয়েছিল ”, বিস্ফোরক মন্তব্য বাঙালি অভিনেত্রী মুনমুন দত্তের

News Desk

April 6, 2021 | 8:56 AM
blog image

মেয়েদের প্রতি পদে পদে অনেকরকম হেনস্থার শিকার হতে হয়। আজও খবরের কাগজ খুললেই চোখে ধর্ষণ যৌন হেনস্থার কথা। প্রতিদিন বাসে ট্রামে প্রায় প্রতিটা মেয়েকেই যৌন হেনস্থার শিকার হতে হয়। ইভটিজিং যেন সাধারণ ঘটনা হয়ে দাঁড়িয়েছে। এরপরে এখন এই ইন্টারনেটের যুগে নতুন সংযোজন সাইবার ক্রাইম। তবে এতো গেল বাড়ির বাইরের বিপদ কিন্তু বাড়ির ভেতরেও মেয়েরা মোটেই সুরক্ষিত নন। সেখানেও তাকে নানা রকম যৌন হেনস্থার শিকার হতে হয়।


ভিডিও


বিভিন্ন সময়ে কাজের জায়গাতেও মেয়েদের যৌন হেনস্থার শিকার হতে হয়। বলিউডও এর ব্যতিক্রম নয়। বলিউডেও অনেক নায়িকাদের যৌন হেনস্থার শিকার হতে হয়েছে। ২০১৮ সালে এই বিষয়ে প্রথম মুখ খুলেছিলেন তনুশ্রী দত্ত। তিনি অভিনেতা নানা পাটেকরের বিরুদ্ধে যৌন হেনস্থার অভিযোগ আনেন। এরপরে একের পর এক অনেক অভিনেত্রী #MeToo লিখে নিজেদের যৌন হেনস্থার কথা স্যোশাল মিডিয়াতে শেয়ার করেন।

সম্প্রতি বাঙালি অভিনেত্রী মুনমুন দত্ত নিজের উপর হওয়া যৌন হেনস্থা নিয়ে একটি চিঠি লেখেন। সেই চিঠি তিনি প্রকাশ্যে আনেন তার উপর ঘটা অনেক অত্যাচারের কথা। তিনি লিখেছেন কাছের মানুষদের কাছেই তিনি বারবার যৌন হেনস্থার শিকার হয়েছেন। যে শিক্ষককে তিনি একসময় রাখি পড়িয়েছিলেন সেই শিক্ষক তার ব্রার স্ট্রাপ ধরে টেনে তার স্তনে থাপ্পর মেরেছিল। তারপর পাশের বাড়ির এক কাকার দৃষ্টিতে মুনমুন সবসময়ই ভয় পেতেন সেও মুনমুনের শরীর একাধিক বার স্পর্শ করেছেন। আবার অভিনেত্রীকে হুমকিও দেন একথা যেন সে কাউকে না বলে। এমনকি যে দাদা তাকে জন্মের সময় দেখতে এসেছিলেন সেই পরবর্তীকালে তার শরীর ছোঁয়ার চেষ্টা করেছে।

এইসব ঘটনা মুনমুনকে গোটা পুরুষ জাতিকে ঘেন্না করতে বাধ্য করে। তিনি বুঝতে পারতেন না তিনি কিভাবে বাবা-মাকে এসব কথা বলবেন। এই কথা বলতে গিয়ে বারংবার তিনি অস্বস্তিতে পড়তেন। তবে এখন আর কাউকে ভয় পান না অভিনেত্রী। এখন যদি তার সাথে কেউ অশালীন ব্যবহার করেন তবে তিনি চুপ করে থাকবেন না।

আরও পড়ুন :   উঁকি দিচ্ছে অনুষ্কার বেবি বাম্প, ম্যাগাজিনের কভারে ঝলসে উঠলেন অভিনেত্রী