করোনাভাইরাসের জের, সোনার দাম ফের বাড়ল

সোমবারও সোনার দাম আকাশ ছোঁয়া হল। ১০ গ্রাম সোনার দাম গিয়ে পৌঁছাল ৪৩ হাজার টাকায়। প্রতিক্ষেত্রে ১ গ্রাম সোনার দাম গতকালের চেয়ে ১ টাকা বেড়েছে। আন্তর্জাতিক বাজারেও এর প্রভাব পড়েছে, গত সাত বছরে এরকম দাম বাড়ার ঘটনা ঘটেনি। বিনিয়োগকারীরা সম্পত্তির নিরাপদ আশ্রয়স্থল হিসাবে সোনাতেই তাঁদের টাকা ঢেলেছিলেন কিন্তু করোনাভাইরাস আতঙ্কে তাঁদেরও আর্থিক ক্ষতি হচ্ছে।

মাল্টি কমোডিটি এক্সচেঞ্জে, সোনা ৫ ফেব্রুয়ারী ২০২০-তে ৪৩৩ টাকা বা ১% বৃদ্ধি পেয়ে সর্বোচ্চ রেকর্ড ১০ গ্রাম সোনার দাম পৌঁছেছে ৪৩,০৯৯। একইভাবে দাম বেড়েছে রূপোরও। প্রতি কেজিতে ২৮১ পয়েন্ট বা ০.‌৫৮ শতাংশ থেকে ৪৮,৫৮৫-এ পৌঁছেছে। দক্ষিণ কোরিয়া, ইটালি ও মধ্য প্রাচ্যের দেশগুলিতে সংক্রমক রোগ করোনাভাইরাসের ফলে বিদেশের বাজারে হলুন খনির বৃদ্ধি কমে গিয়েছে।

ব্যবসায়ীরা জানিয়েছেন যে চিনে করোনাভাইরাসের প্রভাবের ফলে বিনিয়োগকারীদের নিরাপদ সম্পদ সোনা ও সরকারি বন্ডের ওপরও তার প্রভাব পড়েছে মারাত্মকভাবে। আন্তর্জাতিক ক্ষেত্রে গত সাত বছরে স্পট সোনার দাম বেড়ে হয়েছে আউন্স প্রতি ১,৬৭৮.‌৫৮ মার্কিন ডলার, আগস্টের আগেই গত সপ্তাহেই ভালো লাভ হয়েছে বলে জানা গিয়েছে। এই মরশুমে স্পট সোনার দাম বেড়েছে ১,৬৭৮.‌৫৮ মার্কিন ডলার। মার্কিন গোল্ড ফিউচার বৃদ্ধি পেয়েছে ১%‌ থেকে ১,৬৬৫.‌১ মার্কিন ডলার প্রতি আউন্স।

করোনাভাইরাস চিনে মহামারির আকার নিয়েছে। ইতিমধ্যেই ২৬০০ মানুষের প্রাণ গিয়েছে এবং ৮০ হাজার আক্রান্ত এই রোগে। চিনের বাইরেও থাবা বসিয়েছে এই রোগ। বেশ কিছু দেশে এই রোগে মৃত্যুর খবরও পাওয়া গিয়েছে। চিনের প্রেসিডেন্ট শি জিংপিং রবিবার মহামারি করোনাভাইরাসকে দেশের সবচেয়ে বড় জনস্বাস্থ্যের জরুরি অবস্থা ঘোষণা করেছেন। সোমবার পর্যন্ত এই রোগে আক্রান্ত হয়ে মৃত্যু হয়েছে ২,৫৯২ জনের। এছাড়াও ইটালি ও ইরানেও ছড়িয়ে পড়েছে এই রোগ। দক্ষিণ কোরিয়াতেও এই রোগে আক্রান্ত হওয়ার খবর পাওয়া গিয়েছে।