কাছে নেই বাবা, ভাই ইব্রাহিমের জন্মদিন একাই পালন করলেন সারা আলি খান

সইফ-অমৃতার (Saif Ali Khan-Amrita Singh) দ্বিতীয় সন্তান ইব্রাহিমের জন্মদিন পালন করলেন দিদি সারা আলি খান। বয়স কুড়ি ছুঁল ইব্রাহিম (Ibrahim Ali Khan)। মাকে নিয়েই ভাইয়ের জন্মদিন একান্তে পালন করেন সারা আলি খান (Sara Ali Khan)। ভাইয়ের জন্মদিনে তাই বড় মাপের ফুটবল কেক তৈরি করে আনেন সারা। ইব্রাহিমের প্রিয় ক্লাব চেলসার নাম লিখে ভাইকে জন্মদিনের কেক উপহার দেন সারা।

কিন্তু ইব্রাহিমের জন্মদিনের অনুষ্ঠানে দেখা যায়নি সইফ আলি খানকে। ছেলের জন্মদিনে সইফকে (Saif Ali Khan) না দেখা যাওয়ায় সেই প্রশ্ন এখন সকলের! কিন্তু তা নিয়ে সারা আলি খান, ইব্রাহিম কিংবা সইফের তরফে কোনও মন্তব্য করা আসেনি। সম্প্রতি খুদে সদস্যকে নিয়ে ব্যস্ত সইফ আলি খান। তাঁর বয়স ছুঁয়েছে প্রায় ৫০ এর দোরগোরায়। এই বয়সে এসেও টেনে ছক্কা হাঁকালেন ছোটে নবাব সাইফ আলি খান (Saif Ali Khan)।

জীবনের প্রথম পর্বে এসেছিল কন্যা সন্তান – যার নাম সারা আলী খান, অল্পকিছুদিনের মধ্যেই জনপ্রিয় অভিনেত্রী হয়ে গিয়েছেন তিনি, তারপরেই পর পর তিনটি পুত্র সন্তানের বাবা হন সইফ আলি খান (Saif Ali Khan)। তাঁর প্রথম পর্যায়ের স্ত্রীর নাম অমৃতা সিং, তারপর দুই সন্তান হওয়ার পরই সইফ-অমৃতার ডিভোর্স হয়ে যায়, তারপর ২০১২ সালে সাত পাকে বাঁধা পড়েন সইফ-করিনা। তারপর তৈমুরের জন্ম হয় ২০১৬ সালের ডিসেম্বরে। তবে এখন চতুর্থ সন্তানকে নিয়ে দিব্য পিতৃত্বকালীন ছুটি কাটাচ্ছেন সইফ। ছোট্ট ভাইয়ের জন্মের পর বেশ কিছু উপহার নিয়ে ছোট্ট ভাইকে দেখতে যান সারা আলি খানও।

ছোট্ট ভাইকে দেখে ফেরার পরপরই মা অমৃতা সিংকে (Amrita Singh) নিয়ে আজমেঢ় শরিফে যান সারা আলি খান। আজমেঢ়ে গিয়ে সেখান থেকে মায়ের সঙ্গে বেশ কয়েকটি ছবিও শেয়ার করেন সারা। এমনকী, তা মা জীবনে অনেক সহ্য করেছেন। সবকিছু থাকা সত্ত্বেও অনেক কঠিন পরিস্থিতির মুখে পড়তে হয় তাঁকে। সব বাধা বিপত্তির অবসান করে তাঁর মা আবার জীবনে ঘুরে দাঁড়িয়েছেন বলে মন্তব্য করেন সারা। সইফের সঙ্গে বিচ্ছেদ, মায়ের সঙ্গে তাঁদের।