কালো ত্বকে প্রিয়াঙ্কা চোপড়ার মতো গ্লোয়িং স্কিন পেতে ৫টি অসাধারন টিপস

41

গায়ের রং কালো তাই বাইরে বেরোতে লজ্জা পান? কিংবা আয়নার সামনে দাঁড়ালে হীনমন্যতায় ভোগেন? কবিগুরু কবেই লিখেছেন ‘কৃষ্ণকলি আমি তারেই বলি কালো তারে বলে গাঁয়ের লোক’। কিন্তু যতই সবাই বলুক না কেন গায়ের রং দিয়ে কিছু এসে যায় না যারা কালো তারা কিন্তু হীনমন্যতায় ভোগেন। কোন ম্যাজিক ক্রিম এখনো তৈরি হয়নি যা দিয়ে খুব সহজেই কালো থেকে ফর্সা হওয়া যায়। তবে চেষ্টা করলে কালো ত্বকে অনেক বেশি উজ্জ্বল বানানো সম্ভব। কতগুলি পদ্ধতি এবং বাড়িতে থাকা কতগুলি প্রাকৃতিক উপাদান সাহায্য করবে আপনাকে গ্লোয়িং স্কিন বানাতে।

১) জল পান করুন: প্রচুর পরিমাণে জল পান করতে হবে। সারা দিনে অন্তত ১০ গ্লাস। শারীরিক পরিশ্রম করলে, ঘুম থেকে উঠে যোগাভ্যাস করলে জল তেষ্টা অনেক বেশি পাবে। তখন অন্তত ১৫ গ্লাস জল খেতে হবে। খেতে খেতে জল পান করা উচিত নয়। খাওয়ার অন্তত পনেরো মিনিট আগে এবং খাওয়ার শেষ হওয়ার অন্তত পনেরো মিনিট পর জল পান করবে। গ্লোয়িং স্কিন এর একমাত্র রহস্য হলো জলপান। শরীর থেকে সমস্ত টক্সিনকে দূর করতে সাহায্য করে জল। সকালবেলা ঘুম থেকে উঠে চেষ্টা করবেন অন্তত তিন গ্লাস জল পান করতে। তার মধ্যে এক গ্লাস অবশ্যই উষ্ণ জল পান করুন।

আরও পড়ুন:   লকডাউনে বন্ধ রোজগার, ভিক্ষা নয় তুলোর পুতুল বিক্রি করে সংসার চালাচ্ছেন চন্দননগরের বৃদ্ধ

২) চিন্তা মুক্ত থাকুন: সকালবেলা ঘুম থেকে উঠে অন্তত কুড়ি মিনিট যোগাভ্যাস, প্রাণায়াম, মেডিটেশন করতে হবে। ছাদে, ব্যালকনিতে, উঠানে গাছপালার সঙ্গে সময় কাটাতে ওপারে। মন অনেক টেনশন ফ্রি থাকে।

আরও পড়ুন:   কোলকাতায় রাতের অন্ধকারে কুকুরদের ‘ধর্ষণ’, অভিযুক্ত যুবককে চরম শাস্তি দিল এলাকাবাসী

৩) ভেষজ চা পান: সকালবেলা ঘুম থেকে উঠে ব্রেকফাস্ট এর পরে লাঞ্চের আগে এবং পরে সর্বোপরি ডিনারের পর ভেষজ চা পান করতে পারেন। ভেষজ চা (একজনের জন্য) তৈরি করার জন্য প্রয়োজন হবে

১) এক গাঁট হলুদ
২) এক গাঁট আদা
৩) লবঙ্গ ৩ টি
৪) গোলমরিচ ৫ টি
৫) তুলসী পাতা ৫ টি
৬) পুদিনা পাতা ৫ টি
৭) যষ্টিমধু

দুইকাপ জল ভালো করে ফুটতে দিয়ে তার মধ্যে সমস্ত উপাদান দিয়ে ছেঁকে নিলেই একেবারে তৈরি ভেষজ চা। এই ভেষজ চায়ের মধ্যে রয়েছে প্রচুর পরিমাণে অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট। যা শরীরকে পরিস্রুত করতে সাহায্য করে।

আরও পড়ুন:   ধোঁকা দিয়েছে প্রেমিকা, মাঝ রাস্তায় থাপ্পড় মেরে গিফট করা স্কুটি কেড়ে নিল যুবক, তুমুল ভাইরাল ভিডিও

৪) ক্লিনজিং, টোনিং, ময়েশ্চারাইজিং:
ত্বক ভালো করতে প্রতিদিন ক্লিনজিং, টোনিং এবং ময়েশ্চারাইজিং করতেই হবে। অবশ্যই এর জন্য প্রাকৃতিক উপাদান বেছে নিতে পারেন। টোনিং এর জন্য বেছে নিতে পারেন দুধ, লেবুর রস, মধু ইত্যাদি উপাদান। টোনার হিসেবে বেছে নিতে পারে গোলাপজল, গ্রিন টি, শসার রস ইত্যাদি। ময়েশ্চারাইজার হিসেবে বেছে নিন অ্যালোভেরা জেল, দুধের সর ইত্যাদি।

৫) ফেসপ্যাক: সপ্তাহে অন্তত দুদিন ফেস প্যাক লাগাতে পারেন। এর জন্য ব্যবহার করতে পারেন বেসন, টক দই, চালের গুঁড়ো, কফি পাউডার, আটা, কাঁচা দুধ প্রভৃতি ঘরোয়া উপাদান।