ক্যান্সারকে জয় করে ফিরলেন ঐন্দ্রিলা, সুখবর পেয়ে আনন্দিত অভিনেত্রীর ভক্তরা

News Desk

June 2, 2021 | 4:06 PM
blog image

অভিনেত্রী ঐন্দ্রিলা শর্মা, যাকে টেলিপাড়ার সবাই ‘জিয়ন কাঠি’ ধারাবাহিকের জাহ্নবী নামেই চেনেন। যিনি রিল আর রিয়েল জীবনের দুই ক্ষেত্রেই একজন সফল নারী হিসেবেই পরিচিত। তাঁর নেই বিন্দুমাত্র ভয়, আছে শুধুই অসম সাহসিকতা। ভয়কে কি করে জয় করতে হয় তা এই অভিনেত্রীর থেকেই প্রমাণ যায়। তাইতো মনের জোর, নিজের জীবনের প্রতি ভালোবাসা দিয়েই আবারও মারণ রোগ ক্যান্সারকে হারিয়ে সুস্থ হয়ে উঠলেন ঐন্দ্রিলা।

পরপর কেমোর যন্ত্রণা, জটিল অস্ত্রপচারের ধকল সবটাই সহ্য করে আজ অভিনেত্রী মৃত্যুকে জয় করে সুস্থ শারীরিক ব্যাধি থেকে। যদিও এই মারন রোগ ক্যান্সার তাঁর শরীরে দ্বিতীয়বার বাসা বেঁধেছিল। ফেব্রুয়ারি মাসে দিল্লির হাসপাতালে দ্বিতীয়বার এই রোগের শিকার হয়ে প্রথম দিকে একটু ভেঙে পড়েছিলেন অভিনেত্রী। এমনকি নিজের সকল অনুগামীদের সামনে এসে কেঁদেও ফেলেছিলেন অভিনেত্রী কিন্তু পরিবারের ভালোবাসা, মনের মানুষের সঙ্গ আর বহু মানুষের প্রার্থনার জোরেই তিনি ফিরে এলেন সুস্থ হয়ে।


ভিডিও


ঐন্দ্রিলার ক্যান্সারে আক্রান্ত হওয়ার খবর পেয়ে দিল্লি ছুটে গিয়েছিলেন তাঁর প্রেমিক অভিনেতা সব্যসাচী চৌধুরী। রীতিমতো তিনি প্রেমিকার এই শরীর খারাপের সময়ে অভিনেত্রীর পাশে সর্বদা থেকে তাঁর সাহস মনের জোর বাড়িয়েছেন, আমাদের সকলের প্রিয় বামাখ্যাপা ওরফে সব্যসাচী। ঐন্দ্রিলাকে সুস্থ করার চ্যালেঞ্জ নিয়েছিলেন সব্যসাচী। গত সপ্তাহেই ফেসবুক পেজে একটি পোস্টের মাধ্যমে জানিয়েছিলেন, ‘ঐন্দ্রিলার কঠিন অস্ত্রোপচারের পর দু-তিন দিন তাঁকে আই সি ইউ তেই থাকতে হবে এবং তারপর জানা যাবে তাঁর বর্তমান শারীরিক অবস্থা। এরপর তিনি জানান, অভিনেত্রীর অস্ত্রপচারের সাফল্যের কথা।

সব হয়ে গেছে, আইসিইউ থেকেও সুস্থ হয়েও বেরিয়েছে অভিনেত্রী। এই কঠিন সময়টা পেরিয়ে অবশেষে হাসিমুখে ফিরলেন ঐন্দ্রিলা শর্মা। যদিও মানসিকভাবে এই সময়ে অনেকেই তাঁর পাশে থাকলেও কিন্তু শরীরের ভেতরে বাসা বাঁধা এই ভয়ঙ্কর রোগের সঙ্গে অভিনেত্রীকে একাই লড়াই করতে হয়েছে। সব ব্যথা হাসিমুখস সহ্য করে আজ তিনি জয়ী। বাড়ি ফিরেই নিজের ইনস্টাগ্রাম স্টোরিতে তিনি লিখলেন ‘আবার ফিরে আসা’। তবে এই লেখাটার মধ্যে যে কতটা আনন্দ লুকিয়ে আছে তা হয়তো সকলেরই জানা।

আরও পড়ুন :   সুশান্ত কান্ডে নতুন মোড়, তদন্তকারীদের সামনে এল অভিনেতার নিজের হাতে লেখা নোট