জন্মের পরেই সদ্যজাত কন্যা সন্তানকে নিয়ে কঠিন সিদ্ধান্ত নিলেন বিরাট-অনুষ্কা

অবশেষে হলো অপেক্ষার অবসান। বিরাট কোহলি এবং অনুষ্কা শর্মার কোল আলো করে এলো ফুটফুটে কন্যা সন্তান। তারপরেই আশ্চর্যজনকভাবে তারা তাদের ইনস্টাগ্রাম প্রোফাইল কমেন্ট বক্স অফ করে রেখেছেন।বিরাট কোহলি আর অনুষ্কা শর্মা দুজনেই একেবারেই পছন্দ করেন না তাদের কন্যা সন্তান প্রচারের আলোয় আসুক। তাই প্রথম থেকেই প্রচারের আলো থেকে দূরে সরিয়ে রাখা সমস্ত প্রয়াস করে ফেলেছেন তারা।

ডেলিভারির আগের মুহূর্তে প্রকাশিত হয়েছিল তাদের একটি ছবি। ডাক্তার দেখাতে গিয়েছিলেন অনুষ্কা শর্মা। কিন্তু সেই ছবি সোশ্যাল মিডিয়াতে ভাইরাল হয়ে যাবার পর বেশ বিরক্তি প্রকাশ করেছিলেন অনুষ্কা। সকলকে জানিয়েছিলেন যে, একেবারে যিনি পছন্দ করেন না তাদের ব্যক্তিগত জীবন এইভাবে প্রকাশে আসুক। ব্যক্তিগত জীবনকে ব্যক্তিগত রাখতেই তারা ভালোবাসেন।

এই একই কথা তিনি আবারও বললেন তাদের সন্তান জন্ম নেবার পর। সোশ্যাল মিডিয়াতে পোস্ট করতে তিনি লেখেন যে, আশা করি এই সময়টা আমাদের একা ছেড়ে দেওয়া হবে। ব্যক্তিগত জীবনকে সম্মান দেবেন বলে আশা রাখি আমরা। ঠিক একই কারণে হাসপাতালেও ছিল কড়া নিরাপত্তা। মুম্বাই হাসপাতালে বাইরের কারোর প্রবেশ ছিল নিষেধাজ্ঞা।

বন্ধু অথবা অপরিচিত মানুষ কেউ প্রবেশ করতে পারেনি অনুষ্কার কাছে। শুধুমাত্র খুবই ঘনিষ্ঠ পরিবারের মানুষজন ছিলেন তার কাছে।সন্তান জন্ম দেবার পরেও পাঠানো যাচ্ছে না শুভেচ্ছা বার্তা। প্রথম থেকেই সন্তানকে কড়া নিরাপত্তার মধ্যে রেখেছেন তার বাবা-মা। সদ্যজাত এর ছবি যাতে সোশ্যাল মিডিয়াতে ভাইরাল হয়ে যায়, তেমনই পদক্ষেপ নিয়েছেন বিরাট কোহলি।