দরজা খুলতেই ‘থ’প্রাক্তন কর্মচারী, সামনে হাত জোর করে দাঁড়িয়ে আছেন রতন টাটা!

টাটা কোম্পানির কর্ণধার রতন টাটা এবার এক অবাক কান্ড করলেন যা শুনলে যে কেউ রীতিমতো অবাকই হবেন। রতন টাটার(Ratan Tata) এক প্রাক্তন কর্মচারী দুই বছর অসুস্থ। তিনি অসুস্থতার জন্য বাড়ি থেকে কোথাও যান না। সারাদিন বাড়িতেই থাকেন। তার এই অবস্থার কথা রতন টাটা জানতে পারেন LinkedIn-এ একটি পোস্টের মাধ্যমে। আর তারপর রতন টাটা যা করলেন তা সকলের কাছে অনুপ্রেরণা হয়ে থাকবে। ৮৩ বছর বয়সী রতন টাটা কাউকে কিছু না জানিয়ে একেবারে কর্মচারীর বাড়ির সামনে গিয়ে উপস্থিত হলেন।

টাটা সংস্থায় একসময় কাজ করতেন ওই ব্যক্তি। তার অসুস্থতার খবর পেয়ে সেখানে ছুটে গেলেন রতন টাটা। তার কর্মচারীদের প্রতি তিনি সবসমসয়ই বেশ নরম মনোভাব পোষণ করেন। তিনি কখনো তার কাজকে প্রচার করতে পছন্দ করেন না। শুধু ঠিক সময়ে নিজের দায়িত্ব পালন করেন। সেই প্রাক্তন কর্মচারীর বাড়ি পুণেতে। রতন টাটা মুম্বাই থেকে পৌঁছে যান প্রাক্তন কর্মচারীর বাড়ি পুণেতে।

একেবারে বাড়ির গেটের সামনে গিয়ে দাঁড়ান কাউকে কিচ্ছুটি না জানিয়ে। এরপর যখন ওই কর্মচারী নিজের ঘর থেকে বাইরে আসেন তখন তিনি রতন টাটাকে দেখে একেবারে অবাক৷ তার সামনে দাঁড়িয়ে রয়েছেন হাত জোড় অবস্থায় রতন টাটা। তিনি যা স্বপ্নেও কখনও ভাবেননি তাই ঘটে গিয়েছে।

এরপর কর্মচারীর শরীরের অবস্থা জানার পর পাশে থাকার প্রতিশ্রুতি দেন। কথা মিটিয়ে, কুশল বিনিময় করে ফের মুম্বাইয়ের উদ্দেশ্যে উড়ে যান রতন টাটা। রতন টাটার এমন মানবিক বোধের জন্য তাকে তার কর্মচারী সহ সকলেই বেশ পছন্দ করেন।