দুই মহিলা জ্বলন্ত মৃতদেহ উদ্ধারের ঘটনায় অবশেষে গ্রেফতার দুই

দুই মহিলা জ্বলন্ত মৃতদেহ শিল্পাঞ্চল হলদিয়ায় রুপনারায়ন নদীর পাড়ে দুটি মহিলার জ্বলন্ত মৃতদেহ উদ্ধারের ঘটনার পাঁচদিন পর কিনারা করল পুলিশ। এই ঘটনার জড়িত থাকার অভিযোগে পাঁচদিন তদন্ত চালিয়ে দু’জনকে গ্রেফতার করা হল। তবে এই ঘটনার আরও অনেকে জড়িত রয়েছে বলে পুলিশের অনুমান। অভিযুক্তরা হল সাদ্দাম হোসেন ও মঞ্জুর আলম মল্লিক। রবিবার দুইজনকে হলদিয়া মহাকুমা আদালতে তোলা হলে বিচারক তাদের জামিন নাকচ করে পুলিশ হেফাজতের নির্দেশ দেন।

প্রসঙ্গত গত ১৮ ফেব্রুয়ারি হলদিয়া রুপনারায়ন নদীর ঝিকুরখালি নির্জন এলাকায় দুটি মৃতদেহ জ্বলতে দেখে স্থানীয় বাসিন্দারা। এরপর তারা দূর্গাচক থানার খবর দেয়। পুলিশ এসে জল ঢেলে আগুন নেভানোর কাজ করে।

দুই মহিলা জ্বলন্ত মৃতদেহ

দুটি মহিলার শরীরের অধিকাংশ পুড়ে যায়। পাশে দুটি গর্ত খোলা ছিল। পরিচয় জানতে পুলিশ যথেষ্ট বেগ পেতে হয়। দুটি মৃতদেহ ময়নাতদন্তে জন্য পশ্চিম মেদিনীপুরে পাঠায়। এই ঘটনার গোটা রাজ্যে শোরগোল পড়ে যায়। ঘটনার পরিদর্শন করতে আসেন ফরেনসিকের একটি টিম। দূর্গাচক থানার পুলিশকে নিয়ে পুরো ঘটনাটি পরিদর্শন করেন। এরপর সেখানে নমুনা সংগ্রহ করে নিয়ে যায়।

জেলা পুলিশের পক্ষ থেকে দুই মহিলার পরিচয় উদ্ধারের জন্য সংবাদ মধ্যামে সাহায্য চাওয়া হয়। বিশ্বস্ত সূএের খবর দুই মহিলা বাড়ি কলকাতার নিউ ব্যারাকপুর এলাকায়। দুইজন সম্পর্কে মা ও মেয়ে। এই ঘটনা নিয়ে রবিবার সন্ধ্যায় পূর্ব মেদিনীপুর জেলা পুলিশ সুপার ইন্দিরা মুখোপাধ্যায় এক সাংবাদিক বৈঠকে জানান, ‘কোন প্রেমের সম্পর্কের জেরেই এই ধরনের খুন। আমরা জানতে পারছি ওদের দুজনকে জ্যান্ত ভাবেই পুড়িয়ে মেরে ফেলা হয়েছে।’

এই ধরণের তাজা খবর পেতে আমাদের এই পৃষ্ঠা টিকে দেখবেন আপনাদের বন্ধুদের পেয়ে দিতে সাহার্য্য করবেন এবং মাজখানে শেয়ার করে দিবেন Google .

আরও পড়ুন :পৌরসভা নির্বাচনের জয়ের লক্ষ্যে বুথ গঠন করল বিজেপি শহর এর 12 নম্বর ওয়ার্ড