দুদিন পরই সুশান্তের ৩৫ তম জন্মদিন, ভাইয়ের স্মৃতি আগলে অভিনব উদ্যোগ দিদি শ্বেতার

২০২০ সালটা সকলের কাছে তো বটেই বিশেষ করে বলিউড জগতের কাছে দুঃ সময়ের ইতিহাস হয়ে থাকবে। একের পর এক মৃত্যু ঘটে গিয়েছে বলিউডে। ইরফান খান, ঋষি কাপুর, মোহিত বাঘেল সহ বিখ্যাত সব অভিনেতাদের মৃত্যু হয়েছে এ বছর। তবে, যার মৃত্যুতে সবচেয়ে বেশি তোলপাড় হয়েছিল দুনিয়া সেটা হল অভিনেতা সুশান্ত সিং রাজপুত।

বেশিরভাগ মানুষের মতেই তাঁর মৃত্যু কোনো স্বাভাবিক মৃত্যু নয়। ১৪ জুন বান্দার ফ্ল্যাট থেকে তাঁর দেহ উদ্ধারের পর যেন থমকে গিয়েছিল গোটা দেশ। আর তারপর একের পর এক তদন্তে উঠে এসেছে চাঞ্চল্যকর তথ্যে। তবে, এখনও তাঁর মৃত্যু রহস্য অধরা সবার কাছে। কিন্তু কেন্দ্রীয় গোয়েন্দা সংস্থা সিবিআই এখনও চালিয়ে যাচ্ছে তদন্ত।

অভিনেতার মৃত্যুর পর সকলে যেভাবে তার মৃত্যুর সঠিক কারণ পুনরুদ্ধার এর জন্য আন্দোলন করেছিল এখন সেসব অতীত। সকলেই নিজের নিজের কাজে ব্যস্ত হয়ে পড়েছেন। কিন্তু কাছের মানুষরা তার প্রিয়জনের মৃত্যু কখনই ভুলতে পারেননা। ক্ষণে ক্ষণে তাঁর স্মৃতি ফিরে আসে।

তাঁর ভাই এর মৃত্যুতে সবচেয়ে বেশি সোচ্চার হয়েছিলেন যিনি তিনি হলেন সুশান্তের দিদি শ্বেতা সিং কীর্তি। তবে, আজ দুঃখের বিষয় হল যে, কদিন পরই সুশান্তের জন্মদিন। আগামী ২১ জানুয়ারি সুশান্ত সিং রাজপুত ৩৫ বছরে পা দিত।
আর তাই সুশান্তের দিদি সকলের কাছে অনুরোধ করেন যে, তাঁর ভাই এর জন্মদিন উপলক্ষে তাঁর আত্মার শান্তি কামনা করে সকলে যেন তিন জন দুঃস্থ মানুষদের সাহায্য করেন।

এমনকি তাঁর ভাই এর প্রতি শ্রদ্ধা জানাতে সকলে যেন তাঁর ভাই এর গানে পারফরম্যান্স করেন সেই আর্জিও জানান শ্বেতা। কিছুদিন আগেও সুশান্তের নিজের হাতে লেখা একটি চিঠি ইন্সট্রাগ্রামে পোস্ট করেন তাঁর দিদি। সেখানে দেখা গেছিল যে, সুশান্ত তার নিজের জীবনের ৩০ বছরের ইচ্ছে লিখে রেখেছেন। জীবনে তিনি যে, ভুল খেলা বেঁছেছিলেন তাও অভিনেতা উল্লেখ করেন তাঁর চিঠিতে। সেই চিঠিও ভাইরাল হয়েছে সোশ্যাল মিডিয়ায়।

সম্প্রতি ভাই এর জন্মদিন উপলক্ষে দর্শকদের কাছে এমনটাই অনুরোধ জনিয়েছেন তাঁর দিদি।