পরনে স্বল্প পোশাক, গোয়ার সমুদ্রতীরে দুর্দান্ত লুকে প্রশংসা কুড়োলেন জনপ্রিয় অভিনেত্রী ঋতাভরী চক্রবর্তী

টেলি ধারাবাহিক ‘ওগো বধূ সুন্দরী’র ধারাবাহিক দিয়ে মিষ্টি মেয়েটির পথ চলা শুরু হয়। সেই মিষ্টি মেয়ে আর কেউ নয় তিনি হলেন ঋতাভরী চক্রবর্তী। স্কুল পড়ুয়া থাকাকালীন অভিনয় জগতে পা রাখেন। এরপর নিজের পড়াশোনা চলাকালীন সেভাবে অভিনয় না করলেও অভিনেত্রী নানান ভিডিয়ো পোস্ট আর গানের ভিডিয়ো শ্যুটিং দিয়ে মাতিয়ে রেখেছেন ঋতাভরী। আজ এই টলি ডিভা নেটদুনিয়ার একজন পুরোপুরি হটকেক। আর এই অভিনেত্রী নিজের স্বাস্থ্য নিয়েও বেশ সচেতন। একদিকে শরীরচর্চা আর অন্যদিকে কড়া ডায়েটিং -এই দুইয়ের ব্যালেন্সে তিনি হয়ে উঠেছেন হট অ্যান্ড সেক্সি লেডি।

অভিনেত্রী নিজের সোশ্যাল মিডিয়াতে বেশ সক্রিয়। সোশ্যাল মিডিয়ায় কীভাবে নিজের ফ্যানেদের মাতিয়ে রাখতে হয়, তাতে বেশ ভালোই সিদ্ধহস্ত অভিনেত্রী। ফ্ল্যাট অ্যাবস, মেদহীন ছিপছিপে কোমড়ের উষ্ণতায় মাতোয়ারা দর্শক। টেলি ধারাবাহিক ‘ওগো বধূ সুন্দরী’র মিষ্টি মেয়েটি আজ নেটদুনিয়ার হটকেক হয়ে উঠেছেন। একের পর এক সাড়া জাগানো ছবি দিয়ে সোশ্যাল মিডিয়াতে রাতের ঘুম কাড়ছেন এই বঙ্গ ললনা। সদ্যই মুক্তি পেয়েছে চলেছে ঋতাভরীর প্রথম বাংলা সিঙ্গল অ্যালবাম’রূপসাগরে’। এই গানের মিউজিক ভিডিও বেশ হিট হয়।

অভিনয় ছাড়া নানান কাজে নিজেকে বেশ ব্যস্ত রেখেছেন অভিনেত্রী। পথশিশু ও অনাথ বাচ্চাদের অভিনেত্রী কাজ করেন। এছাড়া বোল্ড ফটোশুটের জন্য বেশ ভালোই খ্যাতি অর্জন করেছেন এই অভিনেত্রী। টলিউডের স্টাইল আর ফ্যাশন সেন্স বললেই মাথায় আসে অভিনেত্রী ঋতাভরী চক্রবর্তী। ঋতাভরী সবসময়ই নিজের লুক আর স্টাইলের জন্য বেশ ইউনিক। কখনো বেনারসি শাড়ি পড়ে মরু শহরে ফটোশুট করেন তো বিকিনি পড়ে জলের তলায়। যা নিমেষে ভাইরাল হয় এই ফটোসেশান।

এই অভিনেত্রীর ইন্সটাগ্রাম ফলোয়ার্স সংখ্যা ২.২ মিলিয়ন। আর নিত্যদিনই নিজের নতুন নতুন ফটোশুটেও মাতিয়ে রাখতেন এই টলি ডিভা। নিত্যদিনই কোনো না কোনো লুকে তাক লাগান অভিনেত্রী। করোনা মরশুমে ভ্যাকসিন বেরোতে না বেরোতে নতুন বছরের শুরুতে এবার অভিনেত্রী গোয়াতে ছুটি কাটাতে গিয়েছিলেন। আর সেখানকার বিচে সুন্দর আর সেক্সি পোজে নজর কাড়লেন অভিনেত্রী। হলুদ নেটের ওয়ান পিস পড়ে সাথে খোলা চুল আর মাথায় ফুল দেওয়া। খালি পায়ে নিউড মেক আপে হাসি খুশি মেজাজে পোজ দিলেন অভিনেত্রী। ছবি শেয়ারের সাথে সাথে লাইকের বন্যা বয়ে চলেছে। নিমেষে ভাইরাল ঋতাভরীর এই পোস্ট।