পিঠের কালো দাগ দূর করার সহজ দশটি প্রাকৃতিক উপায়

News Desk

June 22, 2021 | 3:03 AM
blog image

বয়সন্ধির সময় অথবা সানট্যান হলে পিঠে অনেকেই কালো দাগের সমস্যায় ভুগতে থাকেন। তবে বাড়িতে থাকা কয়েকটি ঘরোয়া উপাদান দিয়েই এই পিঠের কালো দাগের সমস্যা দূর হতে পারে। যদি নায়িকাদের মতন সুন্দর ফর্সা পিঠ চান তাহলে সহজেই ব্যবহার করুন এই ১০ টি উপাদান।

প্রথমতঃ লেবু – লেবুর মধ্যে থাকা প্রাকৃতিক অ্যাসিড পিঠে থাকা সমস্ত কালো দাগ দূর করে ফেলে নিমেষের মধ্যে যদি প্রতিদিন এক টুকরো লেবু ওপরে এক চামচ নুন দিয়ে পিঠের মধ্যে ভালো করে ম্যাসাজ করা যায় তাহলে পিঠের ওপরে থাকা মরাকোষ সহজেই দূর হয়ে যায়।

দ্বিতীয়তঃ মধু – মধুর মধ্যে থাকা প্রাকৃতিক ময়েশ্চারাইজার পিঠের কালো দাগ দূর করে পিঠে একেবারে নরম তুলতুলে বানাতে সাহায্য করে। যেকোনো ঘরোয়া ফেসপ্যাকের মধ্যে যদি দু তিন চামচ মধু দিয়ে পিঠে ভালো করে ম্যাসাজ করা যায়, তাহলে খুব সহজেই পিঠের কালো দাগ দূর হয়ে যায়।

আরও পড়ুন :   আজ ভারতে আসছেন ট্রাম্প; আহমেদাবাদে বরণ মার্কিন প্রেসিডেন্টকে

তৃতীয়তঃ কাঁচা দুধ- কাঁচা দুধ হলো প্রাকৃতিক উপাদান হিসেবে অসাধারণ একটি উপাদান। এই কাঁচা দুধ অনেক আগে থেকেই রূপচর্চার একটি উপাদান হিসেবে ব্যবহৃত হয়ে আসছে। তবে একেবারে মখমলের নরম করে তুলতে চান? তাহলে প্রতিদিন কাঁচা দুধ ব্যবহার করুন।

চতুর্থতঃ কফি পাউডার- কফি যেমন অনেকেই খেতে পছন্দ করেন তেমনি যে কোনো রকমের সূর্যের আলোর দ্বারা সৃষ্টি হওয়া ত্বকের উপরে কালো দাগ দূর করতে সাহায্য করে কফি। রেগুলার প্যাক এর মধ্যে যদি দু তিন চামচ কফি ভালো করে মিশিয়ে নিয়ে সুন্দর করে পিঠে ভালো করে ম্যাসাজ করতে পারেন, তাহলে খুব সহজেই পিঠের কালো দাগ একেবারে দূর হয়ে যাবে।

পঞ্চমতঃ শসার রস – প্রতিদিন নিয়মিত যদি শসার রস মুখে মাখা যায়, তাহলে খুব সহজেই পিঠের মধ্যে হওয়া কালো দাগ দূর হয়ে যায়।

আরও পড়ুন :   চা-ওয়ালা দেশ চালাচ্ছেন...মোতেরায় বললেন ডোনাল্ড ট্রাম্প

ষষ্ঠতঃ বেসন – বহু প্রাচীনকাল থেকে বেসন রূপচর্চার কাজে ব্যবহৃত হয়ে আসছে, যদি প্রতিদিন স্নানের আগে দুই তিন চামচ বেসন জলের সঙ্গে গুলিয়ে পিঠে ভালো করে ম্যাসাজ করতে পারেন তাহলে পিঠের ওপরে থাকা মরা কোষ দূর হয়ে গিয়ে পিঠ নরম এবং চকচকে হয়ে ওঠে।

সপ্তমতঃ চালের গুঁড়ো – পিঠের ওপরে অনেক সময় মরা কোষ জমে থাকার ফলে পিঠ দেখতে অমসৃণ লাগে এর জন্য ব্যবহার করতে পারেন চালের গুঁড়ো সালের গ্রহণ এবং কাঁচা দুধ এই তিনটি উপাদান কে সুন্দর করে মিশিয়ে নিয়ে যদি পিঠের মধ্যে মেখে ভালো করে ম্যাসাজ করতে পারেন তাহলে পিঠে অনেক বেশি সুন্দর থাকবে।

অষ্টমতঃ মুলতানি মাটি – ত্বক পরিষ্কার করতে অনেক প্রাচীনকাল থেকেই ব্যবহৃত হয়ে আসছে মুলতানি মাটির সঙ্গে মুলতানি মাটি গলে পিঠের মধ্যে যদি ১০-১৫ মিনিট রেখে তারপর জল দিয়ে ধুয়ে নেয় তাহলে পিঠ অনেক বেশি পরিষ্কার ঝলমলে হয়ে যাবে।

আরও পড়ুন :   করোনা ছড়াল আফগানিস্তান, বাহারিনেও, মৃত্যু বাড়ছে দক্ষিণ কোরিয়া, ইটালিতে

নবমতঃ গোলাপজল – জলের মধ্যে কয়েকটা গোলাপের পাপড়ির ফুটিয়ে ছেঁকে নিলেই তৈরি হয়ে যাবে একেবারের ঘরোয়া পদ্ধতিতে গোলাপজল। এই গোলাপজল যদি প্রতিদিন রাতে শুতে যাওয়ার সময় পিঠে ভালো করে লাগিয়ে নিয়ে শুতে পারেন। তাহলে পিঠ অনেক বেশি সুন্দর থাকবে।

দশমতঃ ভিটামিন ই ক্যাপসুল – মুখের যেকোনো রকমের কালো দাগ, পিঠের কালো দাগ, ঘাড়ের কনুই এর কালো দাগ দূর করতে সাহায্য করে ভিটামিন ই ক্যাপসুল যে কোন ওষুধের দোকানে কিনতে পাওয়া যায়। রাতে শুতে যাওয়ার সময় গোলাপ জল এর সাথে এটি মিশিয়ে লাগালেই পিঠ পরিষ্কার হয়ে যাবে।