প্রচারে গিয়ে অবশেষে বাথরুমে ঢুকে পড়লেন হিরন! বিজেপি প্রার্থীর কান্ডকারখানায় শোরগোল নেটপাড়ায়

13

আর মাত্র দুদিন! বিধানসভা নির্বাচনের আগেই ময়দানে নেমে পড়েছেন রাজনৈতিক দুইদল। হাড্ডাহাড্ডি লড়াইয়ে কেউ কারও মাটি ছাড়তে নারাজ। বাংলায় যেমন তৃণমূলকে হারাতে মরিয়া হয়ে উঠেছে বিজেপি, তেমনই তৃণমূলও নিজেদের জমি কাউকে দখল হতে দেবে না। চলছে জোরকদমে তার প্রস্তুতি। রাজনীতির ময়দানে এবার হচ্ছে হাড্ডাহাড্ডি লড়াই। ইতিমধ্যেই অর্ধেক টলিউড যোগ গিয়েছেন তৃণমূলে। হাত মিলিয়েছেন দিদির সঙ্গে, তৃতীয়বার সরকার গঠনের লড়াইয়ে সঙ্গ দিয়েছেন দিদিকে।

বাদ যায়নি চলচ্চিত্র মহলের একাধিক অভিনেতারাও। গত বছরেই অভিনেত্রী নুসরত, মিমি এরা তৃণমূলে যোগ দিয়েছেন, তাঁরা এখন দাপুটে সাংসদ। এদিকে অভিনেত্রী শতাব্দী রায়ও অনেকদিনের তৃণমূল নেত্রী। তার মধ্যে সৌরভ দাস, অভিনেত্রী কৌশানি মুখোপাধ্যায়, পিয়া সেনগুপ্ত, পরিচালক রাজ চক্রবর্তী, অভিনেত্রী সায়নী ঘোষ, জুন মালিয়া, মালানি দে, অভিনেতা কাঞ্চন মল্লিক, পরিচালক সুদেষ্ণা রায়, নীল-তৃণা আরও অনেকে। অন্যদিকে বিজেপি মহলেও যোগ দিয়েছেন একঝাঁক টলি অভিনেতা যশ দাশগুপ্ত, হিরণ, পায়েল, বিবি পায়রা’ খ্যাত অভিনেত্রী পাপিয়া অধিকারী, সৌমিলী বিশ্বাস, মল্লিকা বন্দ্যোপাধ্যায়, অতনু রায়, কৌশিক রায়, রুদ্রনীল ঘোষ, শ্রাবন্তী চট্টোপাধ্যায়।

আরও পড়ুন:   করোনা আক্রান্তদের গুলি করে হত্যা করছে এই দেশের সরকার, সামনে এলো ভয়ানক তথ্য

এর মধ্যেই প্রচারে নেমে পড়েছেন সদ্য হাতেখরি দেওয়া টলিউড তারকারা। প্রচারে কোনোরকম খামতি রাখছে না গেরুয়া ও সবুজ শিবির। প্রত্যেক দলই নিজেদের প্রচারে আনছেন অভিনবত্ব। বামপন্থীদের প্যারোডির অভিনবত্ব যেমন রয়েছে তেমন আবার ফুলেদের রয়েছে তারকার চমক। প্রচারে নেমেই একের পর এক কান্ড ঘটাচ্ছেন নায়িকারা। কিছুদিন আগেই সদ্য তৃণমূলনেত্রী সায়নী ঘোষ ফেসবুক পেজে আপলোড হয়েছিলো একটি ভিডিও যেটি ঝড়ের বেগে সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়। সেখানে দেখা গিয়েছিল, আসানসোলে প্রত্যেকটি বাড়িতে গিয়ে নায়িকা ভোটের প্রচার করেছেন, তবে সায়নী প্রচারে বেরিয়ে শাড়ি গুটিয়ে রীতিমত দৌড় দিচ্ছেন জনতার অতিরিক্ত ভালবাসা থেকে বাঁচতে! সেই ভিডিও নিয়ে ইতিমধ্যেই রাজনৈতিক দলে তোলপাড় হয়ে গিয়েছে।

আরও পড়ুন:   গায়ে নেই কোন পোশাক, টুপি দিয়ে সারা শরীর ঢাকা! দেখে নিন সানি লিওনের নতুন ছবি

আবার আর একটি ছবি কয়েক ঘণ্টা আগেই ভাইরাল হল। সেখানে দেখা গিয়েছে, সদ্য বিজেপি প্রার্থী হিরন চট্টোপাধ্যায় ভোটের প্রচারে গিয়ে খোদ একজনের স্নানাগারে ঢুকে গিয়েছেন, পাশে দাঁড়িয়ে সাবান গায়ে একটি ব্যক্তি। এক্কেবারে আপাদমস্তক সাবান মাখা এক ব্যক্তির সঙ্গে হাসিমুখে দাঁড়িয়ে আবার পোজ দিলেন হিরণ। প্রচারে আসছেন হিরণ এই শুনেই ওই ব্যক্তি বাথরুম থেকে বেরিয়ে আসেন। তখনই হাসি মুখে হিরন ওই ব্যক্তির পাশে দাঁড়িয়ে পোজ দেন।

এই দৃশ্য ভাইরাল হতেই শুরু হয়েছে রাজনৈতিক কোন্দল। ইতিমধ্যেই বিজেপির তরুণ সৈনিক তথা টলি অভিনেতা যশ দাশগুপ্ত নির্বাচনী প্রচার শুরু করে দিয়েছেন। বিজেপি প্রার্থী ঘোষণা হওয়ার পর দিন থেকেই শুরু করেছেন তিনি ভোটের প্রচার। তিনি হুগলির চন্ডীতলা বিধানসভা কেন্দ্রে দাঁড়িয়েছেন।