ফের শোকের ছায়া বলিউডে, প্রয়াত হলেন কাদের খানের বড় ছেলে, শোকাচ্ছন্ন গোটা পরিবার

News Desk

April 3, 2021 | 2:09 PM
blog image

বলিউডের খ্যাতনামা অভিনেতা কাদের খানের মৃত্যু সংবাদে শোকে মূঝ্হমান হয়ে পড়েছিল বলিউড ইন্ডাস্ট্রি। ২ বছর আগে এই খ্যাতনামা অভিনেতা দেহত্যাগ করেন। ৮১ বছর বয়সে ২০১৮ সালের ডিসেম্বর মাসে মৃত্যু হয় তার। চার দশক ধরে বলিউডের ইন্ডাস্ট্রিতে কাজ করতে দেখা যায় তাকে। অসংখ্য ছবিতে কাজ করেছেন তিনি। অনুমান করা যায় প্রায় ৩০০ টির মতো ছবিতে অভিনয় করেছেন তিনি। শুধুমাত্র অভিনয় নয়, স্ক্রিপ্ট রাইটিং এবং চিত্রনাট্যকার হিসাবেও খ্যাতি পেয়েছিলেন তিনি। তাকে অভিনয় করতে দেখা গিয়েছিল বলিউডের অনেক হিট ছবিতে। ২০১৯ সালে তিনি মরণোত্তর পদ্মশ্রী পুরস্কারে ভূষিত হন। চলচ্চিত্র জগতে তাঁর অবদানের জন্য এই পুরস্কারে পুরস্কৃত হয়েছিলেন।

আরও পড়ুন :   দাদার হাত ধরে খুদের হাতেখড়ি, সরস্বতী পূজায় খোশমেজাজে সৌরভ ও ডোনা

খ্যাতনামা এই অভিনেতার মৃত্যুর দু’বছরের মাথায় কাদের অনুরাগীরা হারালো আব্দুল কুদ্দুসকে। আব্দুল কুদ্দুস কাদের খানের বড় ছেলে। কাদের খানের প্রথম পক্ষের ছেলে তিনি। দ্বিতীয় পক্ষের স্ত্রীর নাম হজড়া এবং তার দ্বিতীয় পক্ষের আরও দুই সন্তান আছে সরফরাজ ও শাহনাওয়াজ। সরফরাজ একজন বলিউড অভিনেতা এবং শাহনাওয়াজকে কাজ করতে দেখা যায় সহকারি পরিচালক হিসেবে।


ভিডিও


 

আব্দুল কুদ্দুস পেশায় ছিলেন বিমানবন্দরের সিকিউরিটি অফিসার। তার মৃত্যু হয়েছে কানাডাতেই এবং সেখানেই তার শেষকৃত্য সম্পন্ন হয়। যদিও মৃত্যুর সঠিক কারণ এখনো পর্যন্ত জানা সম্ভব হয়নি। কাদের খানের সন্তান হওয়ার পরেও লাইমলাইট থেকে নিজেকে অনেক দূরে সরিয়ে রেখেছিলেন তিনি। বলিউডের জনপ্রিয় এক চিত্র সাংবাদিকের ইনস্টাগ্রাম হ্যান্ডেল থেকে কাদের পুত্র আব্দুল কদ্দুররের মৃত্যুসংবাদ ভাইরাল হয়।

তার মৃত্যু শোকে ভেঙে পড়েছে বলিউড ইন্ডাস্ট্রি। শোকের ছায়া ঘনিয়েছে বলিউডে। তবে কাদেরের বাকি দুই পুত্র সম্প্রতি ব্যস্ত রয়েছে তাদের কর্মজীবন নিয়ে। বলিউডের ভাইজান সালমান খানের সাথে একাধিক ছবিতে অভিনয় করতে দেখা গিয়েছে কাদের পুত্র সরফরাজকে এদের মধ্যে ‘তেরে নাম’, ‘ম্যায়নে পেয়ার কিয়া’, ‘ওয়ান্টেড’ প্রভৃতি ছবি উল্লেখযোগ্য। ছোট ছেলে শাহনওয়াজ ও কিছু কম যান না। তিনিও সহ পরিচালকের ভূমিকায় বেশ কয়েকটি হিট ছবিতে কাজ করে ফেলেছেন। ‘মিলেঙ্গে মিলেঙ্গে’, ‘হাম কো তুমসে পেয়ার হে’ ছবিতে সহ-পরিচালকের ভূমিকায় তিনি যথেষ্ট সুনাম অর্জন করেছেন।