‘বাংলা কাশ্মীর হতে চলেছে’, তৃণমূল জেতার পরেই বিতর্কিত টুইট বলি কুইন কঙ্গনার

নন্দীগ্রামকে কেন্দ্র করে ভোটের লড়াইতে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের জয় নিশ্চিত বলে মনে হলেও শেষপর্যন্ত বিজেপির পাল্লা ভারী হয়ে যায়। বলিউডের ট্যানট্রম কুইন কঙ্গনা রানাওয়াত এই পরিস্থিতিতে টুইটারে এক বিতর্কিত মন্তব্য করে লিখলেন, মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের হাতিয়ার বা শক্তি হল বাংলাদেশি আর রোহিঙ্গারা। এরসঙ্গে কঙ্গনা বাংলাকে, কাশ্মীরের সমতুল্যও বললেন।

গতকাল ২রা মে ভোটের ফলাফল বেরোনোর পর বাংলার রাস্তায় তৃণমূল সমর্থকদের বিজয়ী মিছিল শুরু হওয়ার পর, কঙ্গনা টুইটারে লিখছেন, “বাংলাদেশি আর রোহিঙ্গারা মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সবচেয়ে বড় শক্তি… যা ট্রেন্ড দেখছি তাতে বাংলায় আর হিন্দুরা মেজরিটিতে নেই এবং তথ্য অনুযায়ী গোটা ভারতবর্ষের তুলনায় বাংলার মুসলিমরা সবচেয়ে গরীব আর বঞ্চিত।ভাল আরেকটা কাশ্মীর তৈরি হচ্ছে।” এই লেখার পাশে ‘ইলেকশন ২০২১’ লিখেও হ্যাশট্যাগ দিয়েছেন।

অভিনেত্রীর দেশভক্তি বরাবর নজরে এসেছে। তিনি প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির প্রশংসা সামাজিক মাধ্যমে বহুবার করেছেন। এছাড়াও দিল্লিতে ক্ষুব্ধ কৃষকদের সংঘটিত,’ কৃষক আন্দোলনে’র সময় প্রধানমন্ত্রীকে ভরপুর সমর্থন করেছিলেন তিনি। এবার বাংলার নির্বাচন পর্বের শেষে বাংলাকে তুলনা করলেন কাশ্মীরের সঙ্গে, যদিও এর আগে অভিনেত্রী কাশ্মীরের সঙ্গে মুম্বই শহরের তুলনা করেছিলেন।

কঙ্গনার অফিস বেআইনি ভাবে তৈরি করায় তা ভেঙে দিয়েছিলেন মহারাষ্ট্রের শাসকবর্গ শিবসেনার শাসনাধীন বৃহণ্মুম্বই পুরনিগমরা। সেইসময়ে তিনি এই মন্তব্য করেছিলেন। তাই বাংলায় মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের জয়ের পর বাংলাকে কাশ্মীরের সঙ্গে তুলনা করলেন কঙ্গনা।