বিপাশার হটনেস দেখে রেগে আগুন কারিনা, প্রকাশ্যে অভিনেত্রীকে কষিয়ে চড় মারেন সইফ ঘরনী

বলিউডের দুই অন্যতম সফল এবং জনপ্রিয় নায়িকা বিপাশা বসু এবং করিনা কাপুর। একসময় হটনেসে আপামর দেশবাসীকে মাত করেছিলেন দুই অভিনেত্রী। কিন্তু জানেন কি এই দুই অভিনেত্রীর মধ্যে এক সময় তুমুল ঝামেলা হয়েছিল? এমনকি একটি সিনেমার সেটে বিপাশাকে কষিয়ে একটা থাপ্পড়ও মেরেছিলেন করিনা?

বলিউডে অভিনেতা অভিনেত্রীদের মধ্যে প্রায়ই খুব ভালো বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্ক লক্ষ্য করা যায়। খুব সহজেই তারা সোশ্যাল মিডিয়ায় একে অপরের পোস্টে লাইক, কমেন্ট করেন বা সংবাদমাধ্যমের সামনেও একে অপরের সম্বন্ধে খোলামনে কথা বলেন। কিন্তু এর উল্টো একটি উদাহরণ হলো বিপাশা এবং করিনা। দুজনের মধ্যে বিবাদ এতটাই চরমে পৌঁছায় যে, আজনবী ছবির সেটে করিনা বিপাশাকে চড় মারতেও পিছপা হননি।

কিন্তু কি হয়েছিল দুই অভিনেত্রীর মধ্যে? ২০০১ সালে আজনবী ছবিতে বিপাশা এবং করিনা দুজনে একইসাথে অভিনয় করেন। ছবিতে করিনার বিপরীতে ছিলেন অক্ষয় কুমার এবং বিপাশার বিপরীতে ছিলেন ববি দেওল। ছবিতে বিপাশার বেশ কিছু সাহসী দৃশ্যে অভিনয় ছিল। ছবিটি রিলিজ হওয়ার পর এই সাহসী দৃশ্যে অভিনয় করার জন্যই বাকি সবাইকে পিছনে ফেলে পেজ থ্রির হেডলাইন হয়ে গিয়েছিলেন বিপাশা। এই ঘটনাটাই ভালোভাবে নেননি করিনা।

ছবিতে বিপাশার চরিত্রটি তেমন গুরুত্বপূর্ণ ছিলনা, কিন্তু শুধুমাত্র কয়েকটি সাহসী দৃশ্যে অভিনয় করেই সমস্ত লাইমলাইট কেড়ে নিয়েছিলেন তিনি। এটিই সহ্য করতে পারেননি করিনা। এই নিয়েই সুযোগ পেলেই বিপাশাকে খোঁচা দিতেন করিনা। ফলে একসময় শ্যুটিং সেটেই করিনাকে অপমান করেন বিপাশা। এরপরই বিপাশাকে কষিয়ে এক থাপ্পড় মারেন করিনা। এই ঘটনার পর থেকেই দুই অভিনেত্রীর মধ্যে কথাবার্তা বন্ধ হয়ে যায়।

দুই অভিনেত্রীর মধ্যে ঝামেলা এতটাই চরমে ওঠে যে একে অপরের সাথে কোনো ছবিতে কাজ না করার সিদ্ধান্ত নেন দুজনেই। এমনকি বিপাশার গায়ের রঙের জন্য তাকে কালো বিড়ালও বলেছিলেন করিনা। এরপর থেকে বহুদিন দুই অভিনেত্রীকে একসাথে দেখা যায়নি। যদিও পরে সইফের জন্মদিনে বিপাশা নিমন্ত্রিত ছিলেন। সইফের জন্মদিনের পার্টিতে বিপাশাকে জড়িয়েও ধরেন করিনা।