বিশ্বসুন্দরী হয়েও ভুলে যাননি ভারতীয় সংস্কৃতি, ভরা স্টেজে শ্বশুরের পা ছুঁয়ে প্রণাম করলেন ঐশ্বর্য

তিনি একাধারে বিশ্বসুন্দরী আবার বলিউডের অন্যতম জনপ্রিয় অভিনেত্রী ঐশ্বর্য রাই বচ্চন। বিয়ে হয়ে মা হয়ে গিয়েছেন তিনি কিন্তু তাতেও তার সৌন্দর্য এতটুকুও কমেনি। নিজের অভিনয় দক্ষতা এবং নাচের মাধ্যমে তিনি সবার মনে পাকাপাকি জায়গা করে নেন। তবে খ্যাতির শিখরে থাকার পরেও তিনি নিজের দেশের সংস্কৃতি ভোলেননি। তিনি সবসময়ই নিজের পরিবারের সাথে সময় কাটাতে ভালোবাসেন। তা তার স্যোশাল মিডিয়া হ্যান্ডেল দেখলেই বোঝা যায়।

নিজের সহবতকে যে তিনি ভোলেননি তা আরও একবার প্রমাণ করে দিলেন। সম্প্রতি একটি পুরনো ভিডিও স্যোশাল মিডিয়ায় আবারও ভাইরাল হলো। ভিডিওতে দেখা যাচ্ছে একটি পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠানে তিনি অমিতাভ বচ্চনের হাত থেকে পুরস্কার নিচ্ছেন। সেখানেই তিনি পুরস্কার নেওয়ার আগে অমিতাভ বচ্চন মানে তার শশুর মশাইয়ের পায়ে হাত দিয়ে প্রণাম করেন অভিনেত্রী। তারপরেই বিগ বি-র হাত থেকে পুরস্কার নেন অভিনেত্রী।

এই দৃশ্য দেখে জয়া বচ্চন বেশ আবেগঘন হয়ে পড়েন। তার চোখ জলে ভরে ওঠে। শশুর মশাই এবং বউমার এরকম এক অপরূপ দৃশ্য দেখে উঠে দাঁড়িয়ে হাততালি দেন জয়া ভাদুড়ী। যা দেখে স্পষ্টই বোঝা যাচ্ছে বাড়িতে শাশুড়ি এবং বউমার সম্পর্ক বেশ সুন্দর।

ঐশ্বর্য ২০০৫ সালে ওপেরা শো তে অংশ নেন। সেখানে তাকে ভারতীয় মেয়েদের বিভিন্ন ট্যাবু নিয়ে প্রশ্ন করা হয়েছিল। ইংরেজি উচ্চারণে সমস্যা কিংবা বিয়ের আগে সেক্স এসব নিয়ে প্রশ্ন করা হলে অভিনেত্রী বেশ সুন্দর উত্তর দেন। তাকে জনসমক্ষে চুমু খাওয়া নিয়ে প্রশ্ন করা হলে তিনি বলেন প্রকাশ্যে চুমু খাওয়া নিয়ে ভারতীয়রা অভ্যস্থ নন। চুমু সবাই খান তবে সেটা যেখানে সেখানে নয়। ভারতীয়রা এটাকে ব্যক্তিগত আবেগ বলে মনে করেন। বিয়ের আগে সেক্স একটা ট্যাবু কিনা প্রশ্ন করা হলে তিনি জানান এটাকে ভালো চোখে দেখা হয় না। ঐশ্বর্য বলেন ৩০ বছর বয়স হয়ে যাওয়ার পরেও তিনি বাবা-মায়ের সাথেই থাকেন এবং এতেই তিনি খুশি। আবার তিনি এও বলেন বিয়ের আগে মেয়েদের বাবা-মায়ের সাথে থাকাটাই রীতি।