বাংলার ৭০ লক্ষ কৃষকের ভবিষ্যৎ অন্ধকারে! মমতাকে কাঠগড়ায় তুললেন কেন্দ্রীয়মন্ত্রী

মমতার কাছে আর্জি মোদী সরকারের মন্ত্রীর, ৭০ লক্ষ কৃষকদের ভবিষ্যৎ যখন প্রশ্নে

প্রধানমন্ত্রী কিষান সম্মান নিধি প্রকল্পে যোগ দেওয়ার জন্য রাজ্যের মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সরকারের কাছে আর্জি জানাল কেন্দ্রীয় সরকার। পশ্চিমবঙ্গ ব্যতীত অন্য সমস্ত রাজ্য এবং কেন্দ্রশাসিত অঞ্চল এই প্রধানমন্ত্রী-কিষান প্রকল্প বাস্তবায়ন করছে। বর্তমানে ৮.৪৫ কোটি কৃষক এই প্রকল্পে লাভবান হচ্ছেন। কিন্তু বাংলা এখনও প্রকল্পটিকে ব্রাত্য করে রেখেছে।

প্রধানমন্ত্রী কিষান সম্মান নিধি প্রকল্পে

প্রধানমন্ত্রী কিষান সম্মান নিধি প্রকল্পটি বাস্তবায়নের এক বছর পূর্ণ হয়েছে। এমনকী প্রধানমন্ত্রী-কিষান মোবাইল অ্যাপও চালু করা হয়েছে ইতিমধ্যে। সোমবার কেন্দ্রীয় কৃষিমন্ত্রী নরেন্দ্র সিং তোমার বলেন, বাংলার উচিত এই প্রকল্পে যোগ দেওয়া। কেননা আমাদের লক্ষ্যমাত্রা রয়েছে ১৪ কোটি। বাংলা এই প্রকল্পের আওতায় এলে আমরা যেমন লক্ষ্যমাত্রার কাছে পৌঁছে যাব, তেমনই বাংলর কৃষকরাও এই সুয়োগ-সুবিধা পাবে।

রাজ্যে ৭০ লক্ষ কৃষক প্রকল্পের বাইরে

তোমার বলেন, “পশ্চিমবঙ্গ এখনও এই প্রকল্পে যোগ দেয়নি। রাজ্যে ৭০ লক্ষ কৃষক রয়েছেন। ফলে প্রকল্পটি বাস্তবায়িত হলে প্রায় চার হাজার কোটি টাকার সুবিধা এই কৃষকদের কাছে পৌঁছে যাবে। রাজ্যের ৭০ লক্ষ কৃষকের মধ্যে প্রায় ১০ লাখ কৃষক প্রধানমন্ত্রী-কিষান অনলাইন পোর্টালের মাধ্যমে নিবন্ধভুক্ত হয়েছেন। রাজ্য সরকার তথ্য যাচাই করলেই তা দেখতে পাবে।

নগদ অর্থে কৃষকদের সহায়তা দান

এই প্রকল্পের আওতাধীনের নগদ অর্থ কেবল কৃষককেই সহায়তা করবে না, রাজ্যের অর্থনীতিতেও সহায়তা করবে বলে উল্লেখ করে তোমার বলেন, “আমাদের আধিকারিকরা এ বিষয়ে বহুবার রাজ্য সরকারের সঙ্গে যোগাযোগ করেছেন। আমি এই স্কিমে যোগ দেওয়ার জন্য মুখ্যমন্ত্রীকে দু’বার চিঠিও দিয়েছি। তবে মুখ্যমন্ত্রীর কাছ থেকে এখনও কোনও জবাব আসেনি।

প্রধানমন্ত্রী-কিষান পোর্টালে ৯.৭৪ কোটি

তোমার বলেন, অন্ধ্রপ্রদেশ, বিহার ও সিকিমের মতো কয়েকটি রাজ্য তাদের কৃষকদের তথ্য-প্রমাণ কেন্দ্রীয় সরকার কাছে গুরুত্ব সহকারে পাঠিয়েছে। আগামী বছরের মধ্যে ১৪ কোটি কৃষকের লক্ষ্য অর্জনে সফল হবে তারা। প্রধানমন্ত্রী-কিষান পোর্টালে মোট ৯.৭৪ কোটি কৃষকের তথ্য পাওয়া গিয়েছে। ইতিমধ্যে ৮.৪৫ কোটি কৃষককে অর্থ প্রদান করা হয়েছে বলে তিনি জানান

কৃষকদের প্রায় ৮৫ শতাংশ আধার-তথ্য যাচাই

এই প্রকল্পের আওতায় নিবন্ধিত কৃষকদের প্রায় ৮৫ শতাংশ আধার-তথ্য যাচাই করা হয়েছে। বাকিগুলি শীঘ্রই শেষ করা হবে বলে তিনি জানান। এই প্রকল্পের আওতায় কেন্দ্র যোগ্য কৃষকদের তিনটি সমান কিস্তিতে বার্ষিক ৬ হাজার টাকা প্রদান করছে