রানাঘাটের রানু মন্ডলকে বিয়ে করলেন করণ জোহর! ট্রোলের ঝড়ে উত্তাল সোশ্যাল মিডিয়া

21

রানাঘাট স্টেশন থেকে মুম্বাইয়ের উদ্দেশ্যে পাড়ি, যাত্রাটি খুব সহজ ছিল না। রানাঘাট স্টেশনে ভিক্ষুকের বেশে পথচারীদের গান শোনাতেন রানু মন্ডল। একদিন এক ভদ্রলোক রানু মন্ডলের গাওয়া গান মোবাইলে রেকর্ড করেন। আর তা সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করেন। সহজে পরিচিতি পাওয়ার সবথেকে উৎকৃষ্ট মাধ্যম হল সোশ্যাল মিডিয়া।

আর সেই সোশ্যাল মিডিয়াই রানু মন্ডলকে এনে দিয়েছিল দারুণ সুযোগ। গোটা ভারতবর্ষ জুড়ে পশ্চিমবঙ্গের রানাঘাটের রানু মন্ডলকে সবাই চিনতে শুরু করে। এরপর মুম্বাই গিয়ে হিমেশ রেশমিয়ার সঙ্গে ‘তেরি মেরি কাহানি’ ডুয়েট গান করেন রানু। আর এরপরই রানু মন্ডল নিজের পায়ে নিজে কুড়াল মারেন। অর্থাৎ পরিচিতি বেড়ে যাওয়ার পর তার অহংকার বেড়ে যায়। অনুগামীদের সঙ্গে বাজে ব্যবহার শুরু করেন।

আরও পড়ুন:   একমাত্র ছেলে ও স্ত্রীর সঙ্গে পাহাড়ে ছুটি কাটাচ্ছেন ‘রানী রাসমণি'র গদাই ঠাকুর, রইলো ভাইরাল ছবি

এরপরই রানু মন্ডলের প্রতি সমস্ত জনপ্রিয়তা হাস্যরসে পরিণত হয় মানুষের। মাঝেমধ্যেই রানু মন্ডলের বিভিন্ন মিম বানায় অনেকে আর তা সোশ্যাল মিডিয়ায় হাস্যরসে পরিণত হয়। ট্রোলের মধ্যে দিয়ে অনেকে রানু মন্ডলকে ঠাট্টা করেন। মাঝেমধ্যে কোনো ইন্টারভিউতে বলা কোনো কথা নিয়ে ট্রোল করা হয় রানু মন্ডলকে। বর্তমানে এরকমই একটি ট্রোল সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়ে গিয়েছে। আর সেটি হল একটি ছবি।

আরও পড়ুন:   নেশায় মত্ত বহু তারকা, করণ জোহরের পার্টিতে ওইদিন কি ঘটেছিল, তদন্তে নামল NCB

ছবিতে দেখা যাচ্ছে রানু মন্ডল দারুণ সেজে রয়েছেন এবং তার পাশে বর সাজে সজ্জিত হয়ে বসে আছেন বলিউড ইন্ডাস্ট্রির পরিচালক করন জোহর। আর এই ছবি ভাইরাল হওয়ার পর ঝড় উঠেছে। একদল মানুষ ছবিটি নিয়ে হাসি ঠাট্টা করলেও আরেক দল মানুষ বলছেন এটি করা একদমই উচিত হয়নি। ছবিটি বর্তমানে ঠাট্টা ও সমালোচনার কারণ হলেও আলোচনা থামছে না কিছুতেই।