স্টিমারের ওপর থেকে খাবার দিতে গিয়ে বিপদ, মাংস খেতে ওপরে উঠল কুমির, ভাইরাল ভিডিও

পৃথিবীতে প্রতিনিয়তই আমরা এমন হাজারও ঘটনার সম্মুখীন হয়ে চলছি যা আমাদের অবাক করে চলছে। আমরা ভাবি যে, এও কি করে সম্ভব? কিন্তু, পৃথিবী হল এমন একটি জায়গা যেখানে অসম্ভব বলে কিছুই নেই। আর তাই এইসব ঘটনাগুলিও সম্ভব। নিজের চোখে না দেখলে হয়তো কেউ বিশ্বাস করবে না। কিন্তু যারা নিজের চোখে দেখেছে তাঁদের আর এর সত্যতার ব্যাপারে জানাতে হয় না।

এই পৃথিবীর বুকে দাঁড়িয়ে ঘুরতে যেতে ভালোবাসে না এমন মানুষ বোধহয় খুব কমই আছে। প্রত্যেকেই যার যার নিজের সামর্থ্য অনুযায়ী ছোট হোক বা বড় জায়গায় ঘুরতে যায়। আর সেখানে গিয়ে চলে নানান ফটোসেশন। তবে, ভাগ্য খুব সদয় হলে দেখা মিলতে পারে সেখানকার দর্শনীয় জিনিসের।

আর সঙ্গে সঙ্গে সেটা ক্যাপচার করতে খুব বেশি সময় নেয় না কেউই। আর তারপর পালা সোশ্যাল মিডিয়ায় আপলোড করার। বিগত কয়েক বছর আগে একটি ভিডিও ভাইরাল হয়েছিল সোশ্যাল মিডিয়ায়। সোশ্যাল মিডিয়া হল এমন একটি জায়গা যার মাধ্যমে মানুষ দূর দুরান্তের খবর নিমেষেই হাতের মুঠোয় পেয়ে যায়। কোনো কিছুই আর অজানা থাকে না মানুষের কাছে।

অস্ট্রেলিয়ার অডিলেড নদীতে একটা বিশাল কুমিরের দেখা পেয়েছিল সেখানে ঘুরতে যাওয়া পর্যটকেরা। রীতিমতো তাঁরা একটি জাহাজে করেই সেই নদীটা ঘুরছিল। আর তারপর কুমিরের দেখা পাওয়ায় পর একজন পর্যটক একটি লাঠিতে করে একটি মাংসের টুকরো বেঁধে বারবার কুমিরটি মুখের কাছে ধরছিল।

কিন্তু, কুমিরটি যখনই মাংসটিকে খাওয়ার জন্য লাফ দিচ্ছিল ঠিক সেই মুহূর্তেই পর্যটকটি মাংসের পিসটি সরিয়ে নিচ্চিল। বারবারই তিনি এমনটাই করছিল। আর বারবার কুমিরটিও মাংসটি খাওয়ার জন্য চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছিল। আর অন্য সকল পর্যটক এই দৃশ্যটি ভিডিও করছিল। আর যখন বারবার লাফিয়েও কুমিরটি তাঁর খাদ্যের নাগাল পেল না তখন সে হতাশাগ্রস্ত হয়ে মুখটি অন্যদিকে ঘুরিয়ে নিল। কুমিরটি যেভাবে লাফ মারছিল তাতে করে যেকোনো সময় বিপত্তি হতে পারত, এমনকি কুমিরটি ঝাপ মেরে প্রায় স্টিমারের ওপর উঠে পড়ছিল। কোনরকমে বেঁচে গেছেন যুবক। আর এই ভিডিওটিই ভাইরাল হয়েছে সোশ্যাল মিডিয়ায়।