হেরে যাওয়ার পরেও মিলছে না রেহাই, দিলীপ ঘোষকে সোশ্যাল মিডিয়ায় কটাক্ষ একঝাঁক তারকাদের!

ভোট পর্ব গণনা পর্ব সব শেষ। এবারের নির্বাচনে তৃণমূল বিপুল ভোটে জয়লাভ করেছেন। ফের আরেকবার মমতা। ব্যানার্জীর হাতে শাসনভার চলে আসলো। মমতা ব্যানার্জী এদিন জানায় যে এই জয় বাংলার জয়। এই বিধানসভায় বিজেপি যেভাবে প্রচারে বেড়িয়েছিল তাতে সেই ঝড়ের মধ্যে মোদী ম্যাজিক কাজ করেনি।

এদিন বাংলার জয়ের পর বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষকে বহু তারকারা কথা শোনাতেও ছাড়েননি। বহু তারকারাই গর্জে ওঠেন দিলীপ ঘোষের উপর। এক সাক্ষাৎকারে দিলীপ ঘোষ অভিনেতা ও অভিনেত্রীদের উদ্দেশ্যে বলেছিলেন,, “শিল্পীদের বলছি আপনারা নাচুন, গান। ওটা আপনাদের শোভা পায়। রাজনীতি করতে আসবেন না। ওটা আমাদের ছেড়ে দিন। না হলে রগড়ে দেব।” উল্লেখ্য, অনির্বাণ ভট্টাচার্যর লেখা “আমি অন্য কোথাও যাব না, আমি এই দেশেতেই থাকব।” এই গানের উপর ভিত্তি করেই দিলীপ ঘোষ একটি সাক্ষাৎকারে এই কথা বলেছিলেন। এই মিউজিক ভিডিওতে দেখানো হয়েছে সি এ এ এবং এন আর সি র কাহিনী। পাকিস্থান ও ভারতের অঙ্ক বোঝানো হয়েছে। এই গানটিকে একটু ভালোভাবে নিরপেক্ষ হয়ে শুনলে বোঝা যাবে যে এই গানটি বিজেপির উদ্যেশেই রচনা করা হয়েছে। শিল্পীরা তাদের ভাবনা গানের মাধ্যমে সেখানে প্রকাশ করেছেন।

এই বিধানসভায় টলিউডের বহু তারকারা বিজেপি ও তৃণমূলে যোগদান করেছিলেন। কিন্তু এই নির্বাচনে তৃণমূল একাই সংখ্যা গরিষ্ঠতা নিয়ে জয় লাভ করেছে। তাই চুপ নেই টলিউড তারকারা। টলিউডের তারকারা দিলীপ ঘোষের প্রতিটি কথার জবাব দিচ্ছেন তারা। দিলীপ ঘোষের “রগড়ে দেব” কথার উপর ভিত্তি করে তারকারা নিজেদের মত মন্তব্য করছেন।

সোশ্যাল মিডিয়ায় অভিনেতা ভাস্বর চ্যাটার্জী দীলিপ ঘোষের উদ্যেশ্যে জ্যেঠু নামক ব্যঙ্গাত্মক ছড়া লিখে সোশ্যাল মিডিয়ায় ছড়িয়ে দিয়েছেন। অভিনেতা পরমব্রত চট্ট্যোপাধ্যায় লিখেছেন,” আজকে রগড়ানি দিবস পালন হয়ে যাক”। এবারে গর্জে উঠেছেন দেবাশিস কুমারের কন্যা অভিনেত্রী দেবলীনা কুমার। এদিন দিলীপ ঘোষকে বিঁধলেন দেবলীনা কুমার। বাবার সঙ্গে এবং পরিবারের সঙ্গে ছবি পোস্ট করে দেবলীনা লেখেন, ‘বাঙালিদের রগড়ানো এত সহজ নয়’। মুহূর্তেই ভাইরাল এই ঘটনা ।