৭৮ বছরের বুড়োকে বিয়ে করল ১৭ বছরের সুন্দরী কন্যা! অতঃপর যা হল…

32

আপনারা শুনলে অবাক হবেন মাত্র ১৭ বছরের কন্যাকে বিয়ে করলেন ৭৮ বছরের এক বৃদ্ধা। ঘটনাটি বিশ্বাসযোগ্য না হলেও এটাই সত্য। এরকম আজব ঘটনা ইন্দোনেশিয়াতে ঘটতে দেখা গেছে। তাঁদের সম্পর্ক ভেঙ্গে যাওয়ার তাঁরা বিচ্ছেদের সিদ্ধান্ত নিয়েছেন। তাঁরা এই সিদ্ধান্ত গ্রহণ করেন বিয়ের ২২ দিনের মধ্যে। ননি নাভিটা পাত্রীর নাম আর পাত্রের নাম আবাহ সারনা।

আরও পড়ুন:   ফুটপাতে আম বিক্রি করেই রাতারাতি বড়লোক হয়ে গেলেন দরিদ্র তুলসী, পূরণ করলেন স্বপ্ন

এমন অসম বয়সী বিয়ে নিয়ে হইচই পড়ে গিয়েছিল ইন্দোনেশিয়ার পশ্চিম জাবা দ্বীপের সুবাং এলাকায়। ঘটনাটি মাস খানিক আগের। প্রত্যেকের মনেই একটি বিশেষ আকর্ষণ তৈরী করেছিল এই বিয়েকে ঘিরে। আকর্ষণ তৈরী হওয়ার কারণ পাত্র ও পাত্রীর বয়সের পার্থক্য। সোশ্যাল মিডিয়াতেও বেশ জলঘোলা হয়েছে এই নব দম্পত্তির ছবি নিয়ে। এর পরও তাদের সম্পর্কে বিচ্ছেদ দেখা যায়।

আরও পড়ুন:   ঠাকুমাকে বাঁচাতে প্রানের ঝুঁকি নিয়ে ষাঁড়ের সামনে ঝাঁপিয়ে পড়ল ছোট্ট কিশোর, ভাইরাল ভিডিও

পাত্র বিচ্ছেদ চেয়েছে বিয়ের ২২ দিনের মাথায়। পাত্রীর পরিবারের লোকেরা অবাক হন এই ঘটনা শুনে। আবাহকে নিয়ে কোনো সমস্যা নেই তাদের এমনটি জানিয়েছেন পাত্রীর বোন। ননী অবসাদে ভুগতে শুরু করে বিচ্ছেদের খবর শুনে। ননীর বোন জানিয়েছেন যে ননী খারাপ পর্যন্ত খাওয়া বন্ধ করে দিয়েছে এই ঘটনার পর থেকে।

আরও পড়ুন:   সোশ্যাল মিডিয়ায় দেখা মিলল বিরল প্রজাতির প্রানী, মুহূর্তে ভাইরাল হল ভিডিও!

ননী বিয়ের আগে গর্ভবতী ছিলেন এমনটিই বলেছেন আবাহের পরিবার। এর ফলেই বিবাহবিচ্ছেদ এর দাবি করেন আবাহের পরিবার। এই সিন্ধান্তে মন স্থির করার পর আবাহ ফেরত নিয়ে নিয়েছেন ননীকে দেওয়া ট্রাকভর্তি জিনিস, টাকা, গয়না সব কিছু। বর্তমানে সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হতে দেখা গেছে সেই ট্রাক বোঝাই ছবিটিও।