মৃত্যুপুরী ইতালি, একদিনে মৃত ৭৯৩

চিনে শুরু হয়েছিল করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ। কিন্তু অদ্ভুতভাবে সেই দেশের মৃত্যুর সংখ্যাকেও ছাপিয়ে যাচ্ছে ইতালি। প্রায় পাঁচ হাজার ছুঁতে চলেছে মৃত্যুর সংখ্যা। রীতিমত আতঙ্কিত গোটা দেশ।

শনিবার পর্যন্ত ইতালিতে মোট মৃতের সংখ্যা ৪,৮২৫। একদিনেই মৃত্যু হয়েছে ৭৯৩ জনের। মাত্র এক মাস আগে এই ভাইরাস ছড়িয়ে পড়তে শুরু করে সেখানে। আর তারপরই লাফিয়ে লাফিয়ে বেড়েছে সংখ্যাটা।

[আরও পড়ুনঃ শুরু জনতা কার্ফু, সুনসান রাস্তাঘাট, বাড়িতেই মানুষজন]

ইতালিতে মোট আক্রান্তের সংখ্যা গিয়ে দাঁড়িয়েছে ৫৩,৫৭৮। সবথেকে খারাপ চিত্র ইতালির লমবার্ডিতে। সেখানে ৩,০৯৫ জনের মৃত্যু হয়েছে। আক্রান্ত হয়েছেন মোট ২৫,৫১৫ জন। মনে করা হচ্ছে, সেখানে প্রথম থেকে সেভাবে সচেতনতা না নেওয়াতেই পরিস্থিতি ভয়ঙ্কর আকার ধারণ করতে শুরু করেছে।

বিশ্বের মোট ১৭৭টি দেশে মারণ ভাইরাস ছড়িয়ে পড়েছে। মোট আক্রান্তের সংখ্যা ২ লক্ষ ৪১ হাজারেরও বেশি মানুষ করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন। এখনও পর্যন্ত করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে গোটা বিশ্বে ১১ হাজারের কাছাকাছি সংখ্যায় মানুষের মৃত্যু হয়েছে। মৃত্যুর নিরিখে এই মুহূর্তে চিনকেও ছাপিয়ে গিয়েছে ইতালি।

চিন থেকে গোটা বিশ্বে কোভিড-১৯ ছড়িয়ে পড়েছে। চিনে করোনা ভাইরাসের আক্রমণের বলি ৩,২৪৫ জন। চিনে বর্তমানে করোনা পরিস্থিতি নিযন্ত্রণে থাকলেও বিশ্বের বাকি দেশগুলিতে রীতিমতো কাঁপুনি ধরিয়েছে মারণ এই ভাইরাস।

যদিও মৃত্যুর সংখ্যায বেশি হলেও ইতালির থেকে চিনে করোনাভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা প্রায় দ্বিগুণ। চিনে এখনও পর্যন্ত ৮০,৯২৮ জন করোনা আক্রান্তের সন্ধান পাওয়া গিয়েছে।

চিনে করোনা আক্রান্তদের মধ্যে ৭০,৪২০ জন সুস্থ হয়ে উঠেছেন। তবে এখনও ৭,২৬৩ জন চিনের একাধিক হাসপাতালে ভর্তি রয়েছেন। যদিও এই ভাইরাসের উত্‍সস্থল উহানে নতুন করে কোনও করোনা আক্রান্তের খবর পাওয়া যায়নি গত তিনদিনে।