বিনোদন

মাদককান্ডে দীপিকাকে জিজ্ঞাসাবাদ, NCB অফিসারের ধমক শুনে কেঁদে ফেললেন অভিনেত্রী

প্রয়াত অভিনেতা সুশান্ত সিং রাজপুত এর মৃত্যুর পর এনসিবি, সিবিআই এবং আরো অন্যান্য বিভাগ তৎপরতার সাথে তদন্তে নেমেছিলেন। ইতিমধ্যে মাদকদ্রব্য পাচার তদন্তে নেমে অনেক অভিযুক্তকে গ্রেফতার করেন এনসিবি এবং এমনকি সুশান্তের প্রেমিকা রিয়া চক্রবর্তী এবং তার ভাই সৌভিককেও গ্রেফতার করা হয় মাদক পাচারের অভিযোগে। এরপরে একে একে শুরু হয় বলিউডের বিভিন্ন অভিনেতা-অভিনেত্রীর উপর জেরা। এইবার এনসিবির তালিকায় নাম উঠল দীপিকা পাড়ুকোন এর।

এনসিবি জানান মাদক কান্ডের তদন্তের জন্য দীপিকাকে শনিবার টানা ৫ ঘণ্টা জেরা করা হয়। এতেও এনসিবি সন্তুষ্ট নয় কারণ দীপিকা পাড়ুকন খোলাখুলি কিছু স্বীকার করেনি শুধু হ্যাঁ আর না এর মাধ্যমেই তার সমস্ত জেরার উত্তর দিয়েছিল এমনকি জেরার মাঝখানে তিনি কিছু বার ইমোশনালও হয়ে পড়েন। এনসিবি আরো জানায় দীপিকাকে জেরা করার সময় সে প্রায় তিনবার কান্নাকাটি করে তাতে তার প্রতি কঠোরতা কমই নিজেরা যেমন চলছিল তেমনি কঠোরভাবে চলে গেছে এবং আগামীদিনেও আবার তাকে জেরা করা হতে পারে।

মাদকদ্রব্য নিয়ে হোয়াটসঅ্যাপে যে সমস্ত কথা চলতো কিছু তারকাদের মাঝে সেই হোয়াটসআপ এর এডমিন ছিল দিপিকা এটি তার ম্যানেজার আগেই স্বীকার করেছিল। এমনকি চ্যাট-এর মধ্যে কিছু মাদকদ্রব্যের নাম পাওয়া গেছে। দীপিকা ও এই সকল কথা স্বীকার করেছেন। শুধু দীপিকাই নয় তার ম্যানেজার কেউ একসাথে জেরা করা হয় বলে জানিয়েছেন এনসিবি এবং এও জানিয়েছেন তাদেরকে ক্লিনচিট দেওয়া হয়নি কারণ আগামী দিনেও তাদের আবার জেরা করা হতে পারে।

এনসিবি মনে করছেন বলিউডের বিভিন্ন তারকারা এর সাথে জড়িত আছে এবং তাদের মতে সকলকেই একে একে তদন্ত করা হবে যাদের ওপর তাদের সন্দেহ হবে। এর ফলে অনেক তারকারাই চাপে আছেন বলে মনে করা হচ্ছে। দীপিকার পর এবার এনসিবির সম্মুখীন কাকে হতে হবে সেটা এখনো কিছুই বলা যাচ্ছে না।

Related Articles

Back to top button