সর্বশেষ

মোটা হাতি ট্রোলের মোক্ষম জবাব, ১৫ কেজি ওজন কমিয়ে হট ফিগারে সোশ্যাল মিডিয়ায় উষ্ণতা ছড়ালেন অভিনেত্রী ঐন্দ্রিলা

অঙ্কুশ হাজরা (Ankush Hazra) এবং ঐন্দ্রিলা সেন (Oindrila Sen) টলিউডের এক জনপ্রিয় জুটি। দীর্ঘদিন ধরে তাঁরা সম্পর্কে রয়েছেন। গোলগাল চেহারার ঐন্দ্রিলাকে (Oindrila Sen) চোখে হারান অঙ্কুশ (Ankush Hazra)। কিন্তু সম্প্রতি সোশ্যাল মিডিয়ায় ছিপছিপে চেহারায় আগুন ধরিয়েছে ঐন্দ্রিলা (Oindrila Sen)। কিন্তু হঠাৎ করে কিভাবে এতটা ওজন কমিয়ে ফেললেন তিনি! কয়েক মাসের মধ্যেই অভিনেত্রী ৭১ কেজি থেকে ৫৬ কেজিতে পৌঁছেছেন। আর এই ট্রান্সফরমেশনের আপ্লুত প্রেমিক অঙ্কুশ (Ankush Hazra)। একইসাথে প্রশংসায় পঞ্চমুখ অনুরাগীরাও। কিন্তু যাকে নিয়ে এত আলোচনা সে অভিনেত্রী স্বয়ং কি বলছেন আসুন জানা যাক।

সংবাদমাধ্যমকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে এইদিন অভিনেত্রী জানান লকডাউন এ বাড়িতে বসে থেকে হঠাৎই খুবই ওজন বাড়ছিল। যদিও ‘ম্যাজিক’ করার সময় কিছুটা ওজন কমেছিল। কিন্তু বর্তমান পরিস্থিতিতে চারিদিকে এত অসুস্থতা , মৃত্যু ডিপ্রেশনের কারণ হয়ে দাঁড়াচ্ছিল। এছাড়া টলিউডের মনমতো চরিত্র পাওয়ার জন্য তাঁর ওজন কিছুটা বাধা হয়ে দাঁড়াচ্ছে। সবকিছু মিলিয়ে জুন মাস থেকে তিনি শরীরচর্চা করতে শুরু করেন।

অভিনেত্রী জানান প্রথমদিকে খুব কম খাবার খেতেন এবং মিষ্টি খাওয়া একদমই ত্যাগ করে দিয়েছিলেন। প্রথম প্রথম শরীরচর্চার শুরু করার সময় ভীষণ কষ্ট হতো। যদিও প্রথম দুমাস তাঁর ওজন কমেনি। তিনি তখনই কঠিন শরীরচর্চা করার সিদ্ধান্ত নেন।

ফাগুন বউ’ সিরিয়ালের ‘মহুল’ জানিয়েছেন ২৪ থেকে ১৬ ঘন্টা উপসে তিনি কোনদিনই রাজি ছিলেন না। তাঁর ডায়েটিশিয়ান তাঁকে বারে বারে অল্প করে খাবার খেতে বলেছিলেন। ডায়েটের তালিকায় ছিল দিনে ছটি কুসুম বাদে ডিম। এছাড়া ভেজিটেবল স্যুপ, শাক, ফল। রাতে থাকতো প্রোটিন শেক। এছাড়া খিদে পেলে তিনি শসা খেয়ে পেট ভরাতেন। তবে কিছুদিন ডায়েটের পর অল্প পরিমাণে ভাত খাবার অনুমতি তিনি পেয়েছিলেন। উল্লেখ্য ব্ল্যাক কফি, জুসের মতো পানীয় একদমই বাদ ছিল ডায়েটের তালিকা থেকে।

তবে পনেরো কেজি ওজন কমিয়ে আত্মবিশ্বাসী নায়িকা বলেন ওজন কমানোর পর বেশ কিছু খাবার খাওয়ার অনুমতি তিনি পেয়েছিলেন। যেমন এখন মাঝেমধ্যে মাছ, মাংস ঝোল দিয়ে ভাত এবং সপ্তাহে একদিন ফুচকা খান। তবে কফিতে সাধারণ দুধের পরিবর্তে কাঠবাদামের দুধ এবং চিনির পরিবর্তে তিনি গুড় ব্যবহার করেন।

অভিনেত্রী ঐন্দ্রিলা (Oindrila Sen) জানান অনেকেই তাঁকে বলছেন তিনি নাকি প্লাস্টিক সার্জারি করেছেন। তবে শরীরের মেদ ঝড়লে যে মুখের মেদ ঝরে সেটা হয়তো অনেকেরই অজানা। একসাথে অনেকটা ওজন কমার ফলে তাঁর চেহারা পরিবর্তন বোঝা যাচ্ছে।

অভিনেত্রী এদিন সরাসরি বলেন টলিউডের এখনো অভিনেত্রীদের চেহারাটা কাজের জন্য খুব গুরুত্বপূর্ণ। চেহারার জন্য তাঁকে বেশ কয়েকটি ভালো কাজের অফার ছাড়তে হয়। যদিও ‘ম্যাজিক’ ছবিতে তাঁর অভিনয় যথেষ্ট প্রশংসিত হয়েছে। ঐন্দ্রিলা (Oindrila Sen) খোলাখুলি বলেন এক প্রযোজক বলেছিলেন ” তোকে না ওজনটা একটু কমাতে হবে “। তবে বলিউডের বিদ্যা বালানের (Vidya Balan) মতো তিনিও চান এমন অভিনয় হোক যেখানে ওজনটা কোন ম্যাটার করে না। আশাবাদী অভিনেত্রী ভবিষ্যতে টলিউডেও এই প্রথার চল হবে এমনটাই মনে করেন।

আরও পড়ুন:   Subhashree-Srabanti: 'পরম সুন্দরী' গানে তুমুল নেচে 'ডান্স বাংলা ডান্স'-এর মঞ্চ কাঁপালেন শুভশ্রী ও শ্রাবন্তী, ভাইরাল ভিডিও

Related Articles

Back to top button