জুতো পরে গণেশ মূর্তির উপর বসে নেটদুনিয়ায় চরম কটাক্ষের শিকার অভিনেত্রী শ্রাবন্তী!

19

শ্রাবন্তী চ্যাটার্জি! নিজের জীবনে যত চড়াই উৎরাই
হোক না কেন নিজের জীবনের প্রিয় মানুষদের সাথে ভালোবাসায় থাকতে ভালোবাসেন। আর নিজের কাজ নিয়ে ব্যস্ত থাকতে ভালোবাসেম। তবে নিজের জীবনের এতো বিতর্ক রয়েছে, যে ট্রোলাররা সুযোগ পেলেই অভিনেত্রীকে রে রে করে তেড়ে আসেন। অবশ্য এসবে পাত্তা দিতে নারাজ অভিনেত্রী। বরং নিজেকে নিয়ে বেজায় ব্যস্ত অভিনেত্রী।

এখন অভিনেত্রীর পায়ের তলায় যেন সর্ষে রয়েছে। কোনোভাবেই নিজের ঘরে মন টিকছে না অভিনেত্রীর। দুর্গা পুজোর শুরুটা নিজের তিলোত্তমাতে করলেও মহাষ্টমীর অঞ্জলি দিয়েই পাহাড়ের কোলে পালিয়ে গেলেন নায়িকা। অষ্টমীর দিনই নিজের শহর ছেড়েছেন শ্রাবন্তী। তবে অভিনেত্রীর গন্তব্য এখনো অজানা, তবে এই মনোরম পাহাড়ি এলাকা থেকে একের পর এক ছবি আর ভিডিও পোস্ট করে চলেছেন শ্রাবন্তী। 

আরও পড়ুন:   ওয়েস্টার্ন ড্রেসে উন্মুক্ত উরু, হট লুকে নেটিজেনদের প্রশংসা কুড়োলেন অভিনেত্রী মিমি চক্রবর্তী

মঙ্গলবারও অভিনেত্রী নিজের একাধিক ছবি শেয়ার করেছিলেন কখনও নিজের পোস্টে তো কখনও স্টোরিতে। লোকেশনের কথা উল্লেখ না হলেও বোঝা যাচ্ছে তিনি এই মুহূর্তে রয়েছেন সাউথ ইন্ডিয়ার কোনও এক বিলাসবহুল রিসর্টে রয়েছেন। শেয়ার করা ছবিতে অভিনেত্রীকে দেখা গেল কালো শর্টস আর টিশার্টে আর কালো রঙের রোদ চশমা আর স্লিপার।এই দিন তিনি ক্যপাশানে লিখলেন, ‘ঈশ্বরের সৃষ্টিকে দু’হাত বাড়িয়ে স্বাগত জানান’ ক্যাপশনে বেশ কিছু ছবি শেয়ার করেন তিনি। যা তোলা হয়েছে রিসর্টের মধ্যেই।

আর তার মধ্যে একটা ছবিতে দেখা যাচ্ছে পায়ে স্লিপার পরেই গণেশ মূর্তির ওপর বসে আছেন তিনি। আর ব্যাস তারপরেই শুরু হয় নানান কটাক্ষ। নানা মুনির বিরূপ মন্তব্য পরতে থাকে এই ছবি ঘিরে। শুধু তাই নয় হিন্দু ধর্মের অবমাননা করার অভিযোগও ওঠে অভিনেত্রীর ওপর।  এক জনৈক মহিলা এই ছবিতে মন্তব্য করে লিখেছেন, ‘লজ্জা বোধ সব কিছু হারিয়ে গেছে, জুতো পরে গণেশ ওপর বসে পড়েছো, নিজেকে হিন্দু বলে পরিচয় দিও না। বেহায়া মহিলা।’ তারপর থেকে একাধিক কমেন্টে জুতো পরে ঠাকুরের ওপর বসায় তাঁকে একপ্রকার তুলোধনা করেছেন অভিনেত্রীকে।

অবশ্য সোশ্যাল মিডিয়ায় ট্রোলিং শব্দটার সাথে সুপরিচিত অভিনেত্রী। বরাবরই নানা ধরনের কুকথা শুনে আসতে হচ্ছে অভিনেত্রীকে। বিশেষত তিনি তিনবার বিয়ে করাতে কম কথা শোনেননি। তৃতীয়বার বিয়ে ভাঙা নিয়ে নানান কথা শুনেছেন। কিছুদিন আগে মহালয়ার দিন দেবী দুর্গার সাজেছবি দিয়েছিলেন। যাতে বলা হয়েছিল, ‘আপনি দুর্গা নন, আপনি দ্রৌপদী’! তবে বরাবরই ট্রোলের পাত্তা দেননা অভিনেত্রী। নিজের শর্তে বাঁচতে ভালোবাসেন।