নিউজবিনোদন

মা মারা যাওয়ার পর সুশান্তের বাবা আরও একবার বিয়ে করতে চেয়েছিল, বোমা ফাটালেন রিয়া চক্রবর্তী

সুশান্তের মৃত্যুতে সুশান্তের পরিবার এবং রিয়া চক্রবর্তী ক্রমাগত একে অপরকে দোষারোপ করে যাচ্ছেন। এতদিন জানা গিয়েছিল রিয়া চক্রবর্তী সুশান্তের মৃত্যুর জন্য একমাত্র দায়ী ছিল।কিন্তু রিয়া চক্রবর্তী তার জামিনের বয়ানে অন্যান্য জনপ্রিয় তারকাদের বিরুদ্ধে কথা বলার পাশাপাশি সুশান্তের বাবার বিরুদ্ধে অভিযোগ জানিয়েছেন।
তিনি সুশান্তের মৃত্যুর জন্য পরোক্ষ এবং পরোক্ষভাবে দায়ী করেছেন তার বাবা কে কে সিং কে।

নতুন জামিনের আবেদনের রিয়া আরো একবার জানিয়েছেন যে, সুশান্ত এবং তার বাবা সম্পর্ক একেবারেই ভাল ছিলনা। সুশান্তের সঙ্গে বাবা সম্পর্ক খারাপ হতে শুরু করে যখন তার বাবা দ্বিতীয় বিয়ে করার চিন্তা-ভাবনা পোষণ করেন। তখন সুশান্ত অনেকটাই ছোট ছিল। সুশান্তের মা চলে যাবার পর থেকে সুশান্ত আরো বেশি ডিপ্রেশনের শিকার হয়ে ছিল বলে আগেও জানা গেছে।

শুধুমাত্র সুশান্তের নয়, সুশান্তের ভালো ছিল বাইপোলার ডিজঅর্ডার। তার বাবার ডিজঅর্ডার এর পাশাপাশি তার মাকে ডিপ্রেশনের শিকার হতে হয়েছে বলে দাবি করেছে রিয়া চক্রবর্তী। শুধুমাত্র সুশান্তের বাবা-মা নয়, সুশান্তের দিদি প্রিয়াঙ্কাও নাকি ডিপ্রেশনের ওষুধ খেতেন। তাই এটা প্রমাণিত হয়েছে যে, সুশান্তের বাইপোলার ডিজঅর্ডার যদি থেকেও থাকে, তা সুশান্ত পেয়েছে তার পারিবারিক জিন থেকে।

এছাড়াও সুশান্তের ব্যাংক একাউন্ট থেকে উঠে এসেছে আরও একটি চাঞ্চল্যকর তথ্য। সুশান্তের যে ব্যাংক অ্যাকাউন্ট থেকে ১৫ কোটি টাকা রিয়া চক্রবর্তী সরিয়ে ফেলেছেন এমন অভিযোগ করা হয়েছিল, সেই ব্যাংক একাউন্টে কিন্তু সুশান্তের দিদি নামেনি রয়েছেন, সেখানে রিয়া চক্রবর্তী কোন উল্লেখ নেই। ফলে সমস্যা এখনই সমাধানের দিকে যাচ্ছে না,সুশান্তের মৃত্যুতে কাউকেই দোষী সাব্যস্ত না করে থাকা যাচ্ছে না, এমনটাই জানিয়েছেন কেন্দ্রীয় গোয়েন্দা সংস্থা।

Related Articles

Back to top button