লকডাউন এর মাঝে কিছুটা স্বস্তির খবর সোমবার থেকে খুলছে রাজ্যের সব সরকারি দপ্তর

করোনা মোকাবিলায় লকডাউনের জেরে বন্ধ রয়েছে বহু গুরুত্বপূর্ণ কাজ। শুধুমাত্র কয়েকটি জরুরী পরিষেবা সঙ্গে যুক্ত দপ্তর ছাড়া রাজ্যে বন্ধ রয়েছে বাকি সমস্ত দপ্তর। আগামী ২০ এপ্রিল থেকে রাজ্যের সমস্ত সরকারি দপ্তরে কাজ শুরু করার নির্দেশ দিয়েছেন মুখ্যসচিব রাজীব সিনহা।

২০ এপ্রিল থেকে রাজ্যে সরকারি দপ্তরে কাজ শুরু হয়ে যাবে বলে জানালেন মুখ্যমন্ত্রী। বৃহস্পতিবার মুখ্যসচিব একটি নির্দেশিকা জারি করেন। তাতে বলা হয়েছে সরকারি দপ্তরে ২৫ শতাংশ কর্মী নিয়ে কাজ শুরু করার জন্য এবং পাশাপাশি জানানো হয়েছে একদিন পরপর কর্মীরা কাজে আসবেন।

স্বরাষ্ট্র মন্ত্রকের নির্দেশে লকডাউন এর প্রথম দফায় পুলিশ দমকল ট্রেজারি কারা বিভাগের মত জরুরী পরিষেবা যুক্ত দপ্তর গুলি খোলা ছিল। কিন্তু ২০ এপ্রিলের পর থেকে ছাড় দেওয়া হচ্ছে বেশ কিছু কাজের ক্ষেত্রে।অধিকাংশ দপ্তরগুলো বন্ধ থাকায় সমস্যার সম্মুখীন হয়েছেন সাধারণ মানুষ।

তাদের কথা মাথায় রেখে গত বুধবার মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ক্ষুদ্র শিল্প, জুট মিল এবং ১০০ দিনের কাজ চলার অনুমতি দেন। পাশাপাশি ২০ এপ্রিলের পর গ্রাম অঞ্চল গুলো স্বাভাবিক ছন্দে ফিরবে এবং করোনা স্পর্শ কাতর এলাকাগুলো আগের মতোই নিয়ম লাগু থাকবে বলে জানান মুখ্যমন্ত্রী।

আজ পূর্ব কলকাতার একাধিক এলাকা সিল করে দেওয়া হয়েছে। করোনার ভরকেন্দ্র হাওড়া এবং উত্তর ২৪ পরগনার কয়েকটি এলাকা চিহ্নিত হওয়ায় সেই এলাকায় গুলিতে পুলিশকে তৎপর হওয়ার নির্দেশ দিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী। এমনকি লকডাউন না মানলে সশস্ত্র পুলিশ নামানোর হুঁশিয়ারি দিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী।