অলিম্পিকে মীরাবাঈ চানুর পদক জয়ের পর সোশ্যাল মিডিয়ায় ট্রোলের মুখে অভিনেত্রী অনন্যা পান্ডে

9

তুলনা মানুষ করতে পারে আর তুলনা মানুষ করেও। যখনই ব্যতিক্রমী কিছু দেখা যায় তখনই মানুষ তুলনা করে, বা কোনো বিষয়কে নিয়ে মজার খোরাক বানায় ইত্যাদি। আজকের মজার খোরাক হলেন বলিউড অভিনেত্রী অনন্যা পান্ডে, যাকে বা যাদের আমরা নায়িকা বা হিরোইন বলি। অন্যদিকে তুলনার বিষয় বস্তু হল সম্প্রতি অলিম্পিক রৌপ্য পদক জয়ী মীরাবাঈ চানু। চলুন ব্যাপারটা খোলসা করে বলা যাক।

অনন্যা পান্ডে, ইনি স্টুডেন্ট অব দ্য ইয়ার ২ চলচ্চিত্রে অভিনয়ের মাধ্যমে অভিনেত্রী হিসেবে যাত্রা শুরু করেন। এবং তিনি অভিনেতা চাঙ্কি পাণ্ডে ও ভাবনা পাণ্ডের সন্তান। অভিনয়ে আসার আগে অনন্যা পাণ্ডে শাহরুখ খান অভিনীত রইস (২০১৭) এ সহকারী পরিচালক হিসেবে কাজ করেছেন। এছাড়াও ২০১৮ সালে অনন্যা পাণ্ডে লাকমে ইন্ডিয়ার বিপণন দূত হিসেবে নিযুক্ত হন। এই হল অনন্যার কেরিয়ার। পরবর্তীতে আরো দুটি সিনেমা করলেও তা ফ্লপ। যখন অনন্যা প্রথম স্টুডেন্ট অফ দ্য ইয়ার ২ করলেন তখন তিনি ফিল্মফেয়ার অ্যাওয়ার্ড পান এবং পেয়েই সারা রাত ওই অ্যাওয়ার্ড বুকে নিয়েই ঘুমান। তার মা সেই ছবি তুলেও রাখে যা পরবর্তীতে সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়।

এবার আসি মীরাবাঈ চানুকে নিয়ে। বয়স মাত্র ২৬। এই বয়সে তিনি গোটা ভারতের নয়নের মণি। মহিলাদের ৪৯ কেজি বিভাগে ক্লিন অ্যান্ড জার্ক এবং স্ন্যাচ মিলিয়ে মোট ২০২ কেজি ওজন তুলে রুপো দেশকে বিশ্ব মঞ্চে গর্বিত করেন তিনি। দেশের প্রধানমন্ত্রী থেকে মুখ্যমন্ত্রী সকলেই তাকে শুভেচ্ছা বার্তা পাঠিয়েছেন এমনকি মণিপুর সরকার তাকে চাকরীতে পদোন্নতি দেওয়ার পাশাপাশি ১ কোটি টাকার পুরস্কারও দিয়েছেন।

এবারে আসি তুলনায়। নেট জনতা ঠিক কোন বিষয় নিয়ে তুলনা করেছেন এবং অনন্যা পান্ডেকে ট্রোল করেছেন। স্টুডেন্ট অফ দ্য ইয়ার ২ এর জন্য ফিল্মফেয়ার অ্যাওয়ার্ড পেয়েই অনন্যা পুরস্কার নিয়ে শুয়েই গেলেন, সেই ছবি পোস্ট পর্যন্ত করলেন। এদিকে মীরাবাঈ চানু কিন্তু, দীর্ঘ সংঘর্ষে জয়লাভের পর নিজের ঘরে ফিরে পরিবারের সঙ্গে মেঝেতে বসেই ভাত খাচ্ছেন। হ্যাঁ, টি-শার্ট ও শুট প্যান্ট এবং স্লিপার্স পায়ে মাটিতে বসে এক সাদা প্লেটে শাক,ডাল,সব্জি দিয়ে ভাত খেতে দেখা গিয়েছে তাঁকে। এই ছবি দেখে অনেকেই তাকে কুর্নিশ জানিয়েছেন। এবং কিছু নেট জনতা দুটি পুরস্কার পাওয়া ও জেতার মধ্যে তুলনা করেছেন ও অনন্যাকে ট্রোল করেছেন। কেউ বলছেন, অভিনেতা চাঙ্কি পাণ্ডে থাকার জন্যেই অনন্যা ফিল্মফেয়ার অ্যাওয়ার্ড পান, অর্থাৎ ওটা কেনা হয়, কিন্তু অলিম্পিক্স এর পদক কেনা যায় না আর শো অফ করাও যায় না। তাই দেশের আসল হিরোইন হলেন এরাই, ওরা নয় যারা ফ্লপ সিনেমা করে পদক জেতে।

আরও পড়ুন:   টলিউডে তৈরি হচ্ছে মদন মিত্রের বায়োপিক, মুখ্য চরিত্রে অভিনয় করবেন অভিনেতা শাশ্বত চট্টোপাধ্যায়