মা ঐশ্বর্যের সাথে অন্তরঙ্গ মুহূর্তে দেখে রণবীরকে বাবা ভেবেছিল অভিষেক কন্যা আরাধ্যা

566

রণবীর কাপুর নিসন্দেহেই বলিউডের হ্যাণ্ডসাম হাঙ্ক বললেও অনেক কম। এই সুপার ড্যাশিং অভিনেতার অভিনয় আর লুক দুই বরাবর হিট। রণবীরের দিওয়ানা বলিউডের প্রায় প্রত্যেক অভিনেত্রীরা। অনেকে রণবীরের সাথে অভিনয় করতে ইচ্ছুক। ঋষি কাপুরের এই ছেলে নিজের প্রথম সিনেমা তোয়ালে পড়ে ডান্স করে সকল রমণীর মনে পাকাপোক্ত জায়গা করে নিয়েছিলেন। আজ ও সেই জায়গা করতে পারেনি। বলিউড অভিনেত্রীদের পাশাপাশি তাঁদের ছানা পোনারা মানে এখনকার প্রজন্মরাও রণবীরেএ বেশ বড় ফ্যান।

ঐশ্বর্য রাইয়ের কন্যা মানে আরাধ্যা বচ্চন যেমন মিষ্টি তেমন সুন্দরী। এই একরত্তি রণবীরের বিশাল বড় অনুরাগী। শোনা যায় সে এখন থেকেই নাকি এই হিরোকে চোখের সামনে দেখলে খুব লজ্জা পায়। অবশ্য শুধু ক্রাশ এই কারণে নেপথ্যে আছে এক গল্প। আর এই গল্প শেয়ার করেছিলেন আরাধ্যার জননী প্রাক্তন বিশ্বসুন্দরী ঐশ্বর্য নিজেই।

আরও পড়ুন:   রোজ রাতে যেভাবে স্বামীকে খুশি করেন রানী মুখার্জি

সম্প্রতি ফিল্মফেয়ারকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে ঐশ্বর্য জানিয়েছেন, ২০১৬ সালে ‘অ্যায় দিল হ্যায় মুশকিল’ ছবিতে যখন রণবীরের সঙ্গে কাজ করেছিলেন ঐশ্বর্য, তখন থেকেই নাকি মুহূর্তের মধ্যে মেয়ের ক্রাশ হয়ে যায় রণবীর কাপুর। একদিন ছোট্ট আরাধ্যা সিনেমার শ্যুটিং সেটে মায়ের সঙ্গে হাজির হয়েছিল। সেদিন নাকি এই একরত্তি রণবীরকে নিজের বাবা অভিষেক ভেবে ছুট্টে গিয়ে জড়িয়ে ধরেছিল। আসলে সেদিন রণবীর অভিষেকের মতোই জ্যাকেট আর টুপি পরেছিল। আর আরাধ্যা পিছন থেকে ওই ভাবে রণবীরকে দেখে নিজের বাবার সাথে পুরোপুরি গুলিয়ে ফেলেছিল।

অবশ্য রণবীরের প্রতিক্রিয়াও অভিনেত্রী জানালেন। তিনি বললেন এই ঘটনার পর রণবীর নাকি আরাধ্যাকে দেখে আহ্লাদে আটখানা হয়ে গিয়েছিলেন। যদিও সেই ঘটনায় বেশ লজ্জায় পড়ে গিয়েছিল আরাধ্যা নিজে। পরে সে সব কথা নিজের মাকে জানিয়েছিলেন যে রণবীরকে সে আসলে নিজের বাবা ভেবেছিল।এই জন্য এই হ্যান্ডসাম অভিনেতাকে দেখলে আরাধ্যা এত লাজুক হয়ে পড়ে।

আরও পড়ুন:   রনবীরের সঙ্গে অন্তরঙ্গ দৃশ্যে ঐশ্বর্য, বউমার কীর্তি দেখে বিচলিত অমিতাভ বচ্চন

ঐশ্বর্য আরও জানিয়েছেন, এই ঘটনার আরাধ্যা দু’-একবার রণবীর আঙ্কেল বলে ডাকলেও এখন সে আর কোনো আঙ্কেল বলে সম্বোধন করেনা। এখন অভিনেতাকে ভালোবেসে আরকে বলেই ডাকে। আর এটা নিয়ে রণবীরের সাথে ইয়ার্কি করেন অভিষেক ও তাঁর ঘরণী। ঐশ্বর্যের আরো বলেন, তিবি যখন ছোট ছিলেন সেই সময় রণবীরের বাবার ঋষি কাপুরের ওপর ক্রাশ খেয়েছিলেন আর এখন তার মেয়ে ঋষি পুত্রর ওপর ক্রাশ খায়। জীবনের সব ছোটবেলার অভিজ্ঞতাই আবার আরাধ্যার জন্য তিনি উপভোগ করছেন।

প্রসঙ্গত, বলিউডে এখন নয়া গুঞ্জন খুব শীঘ্রই বচ্চন পরিবারে আসতে চলেছে নতুন সদস্য। দ্বিতীয়বার মা বাবা হতে চলেছেন ঐশ্বর্য রাই বচ্চন আর অভিষেক বচ্চন। সম্প্রতি আর শরৎ কুমারের বাড়িতে নিমন্ত্রিত ছিলেন ঐশ্বর্য রাই বচ্চন, মেয়ে আরাধ্যা এবং স্বামী অভিষেক। আর সেই সময় গ্রুপ ফটোতে তোলা একটি ছবি শেয়ার করে আর শরৎ কুমারের মেয়ে ভারালক্ষ্মী তাঁর সোশ্যাল মিডিয়াতে। আর ওই ছবিতে অভিনেত্রীর বেবি বাম্প স্পষ্ট।