অফবিটবিনোদন

সিনেমার গল্পকেও হার মানাবে অরিজিৎ সিংয়ের ব্যক্তিগত জীবনের কাহিনী

অরিজিৎ সিংকে আমরা সকলেই চিনি। আবাল-বৃদ্ধ-বনিতা তার গানের নেশায় মত্ত। স্বভাবে শান্ত এবং ধীর-স্থির এই বলিউডের জনপ্রিয় গায়ক কে ভালবাসেন প্রত্যেকে। কিন্তু তিনি একাধিক স্যাড সং গেয়ে সকলের মনে জায়গা করে নিলেও, তার ব্যক্তিগত জীবন খুব একটা সুখের ছিল না। তার ব্যক্তিগত জীবনে প্রেমে ছিল প্রচুর টানাপোড়েন।তাই সব সময় নিজের ব্যক্তিগত জীবন প্রচারবিমুখ রাখতে পছন্দ করতেন এই গায়ক।

প্রেমের কাহিনীতে রয়েছে একাধিক টুইস্ট, যা শুনলে মনে হবে কোন সিনেমার চিত্রনাট্য শুনছেন। অরিজিতের জীবনে যেমন এসেছিল প্রেম, তেমনই হয়েছে বিবাহ বিচ্ছেদ।তার ক্যারিয়ারের প্রথম দিকটা এমন মসৃণ কখনোই ছিল না।

ছোট থেকেই গান-বাজনার ওপর একটা আলাদা টান ছিল অরিজিৎ এর। তার প্রাথমিক সংগীত শিক্ষা শুরু হয়েছিল পন্ডিত রাজেন্দ্র প্রসাদ হাজারীর কাছে। তিনি যে তার জীবনে সব সময় গান কে প্রথম জায়গা দিয়েছিলেন তা বলাই বাহুল্য।
তার গান শুনলেই বোঝা যায় যে, কতটা মনের ভেতর থেকে তিনি গান করেন। যেকোনো পরিস্থিতিতে মন খারাপ হলে, অরিজিতের গান চোখ বন্ধ করে একবার শুনলে মন ভাল হয়ে যায়।

২০০৫ সালে ফেম গুরুকুল নামে একটি রিয়েলিটি শো দিয়ে তার জীবনে জয় যাত্রা শুরু হয়েছিল।সেখানে তিনি জনপ্রিয়তার নিরিখে বিজয়ী হতে না পারলেও ক্যারিয়ারের প্রথম ধাপ ততক্ষণে তিনি জয় করে ফেলেছিলেন। কারণ এই রিয়েলিটি শো এর পর তার ডাক আসে আশিকি টু’ ছবিতে গান গাওয়ার জন্য। তুম হি হো, এই গানটিকে রাতারাতি বিপুল জনপ্রিয়তা পেয়েছিলেন অরিজিৎ। এরপর আর পেছনে ফিরে তাকাতে হয়নি তাকে।

একের পর এক অসংখ্য হিট গান গেয়ে সকলের মনে জায়গা করে নিয়েছিলেন তিনি। ২০১০ সাল নাগাদ তিনি সংগীত পরিচালক প্রিতমের বিভিন্ন প্রজেক্টে কাজ করতে শুরু করেছিলেন। এরপর প্রীতমের সঙ্গে কাজ করার সময় তিনি ফ্রেম গুরুকুলের এক প্রতিযোগিকে বিয়ে করেছিলেন। কিন্তু তার বিবাহবিচ্ছেদ হয়েছিল কিছুদিনের মধ্যেই।

এরপর শুরু হয় তার প্রেমের নতুন পর্যায়।ছোটবেলার বন্ধু কোয়েলের সঙ্গে আবার বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হয়েছিলেন অরিজিৎ। কোয়েলের জীবনেও ছিল না উত্থান এবং পতন। তার অতীতের বিবাহ সম্পূর্ণতা পায় নি। কিন্তু প্রথম বিবাহ থেকে তার রয়েছে একটি সন্তান।

তাই একে অপরের পাশে দাঁড়ানোর অঙ্গীকার নিয়ে অরিজিৎএবং কোয়েল আর নতুন করে সংসার বাঁধতে শুরু করলেন। আজ তারা তাদের বিবাহ জীবনে খুবই খুশি।

Related Articles

Back to top button