মধ্যবিত্তদের জন্য দুঃসংবাদ! ফের ঊর্ধমুখী সোনার দাম, জানুন আজকের বাজারদর

পর পর বেশ কয়েকদিন নিম্নমুখী ছিল সোনার দাম। চলতি বছর সোনার দামে দেখা গিয়েছে বহু পরিবর্তন। কখনও ঊর্ধ্বমুখী তো কখনও নিম্নমুখী। কিন্তু এরই মাঝে সোনা প্রেমীদের জন্য ফের খারাপ খবর। বেশ কয়েকদিন নিম্নমুখী থাকার পর সোমবার ফের বাড়ল সোনার দাম।

চলতি বছর করোনাভাইরাস পরিস্থিতিতে প্রতিদিন দেখা গিয়েছে সোনার দামে পরিবর্তন। যদিও করোনা আবহে লকডাউনের জেরে অতিরিক্ত হারে বেড়ে গিয়েছিল সোনার দাম। তারপর ধীরে ধীরে মধ্যবিত্তের সাধ্যের মধ্যে আসতে শুরু করলেও ফের বাড়ল সোনার দর। বিশ্বের বিভিন্ন দেশের সরকার ও কেন্দ্রীয় ব্যাঙ্কের আর্থিক প্যাকেজের ফলে চলতি বছরের শুরু থেকে ভারতে সোনার দাম ৩০ শতাংশ মতো বেড়েছে। এরই মাঝে সেপ্টেম্বরের মাঝামাঝি সময়ের সপ্তাহের প্রথম থেকেই চাঙ্গা হতে শুরু করেছে। তবে১৫ সেপ্টেম্বর ও ১৬ সেপ্টেম্বর আমেরিকার কেন্দ্রীয় ব্যাঙ্কের এক বৈঠক আছে। অন্য দিকে চলতি সপ্তাহের মধ্যবর্তী বা শেষের দিকে আমেরিকার কেন্দ্রীয় ব্যাঙ্কের আর্থিক নীতি সংক্রান্ত সিদ্ধান্ত ঘোষণা করা হবে খবর।

আসুন এবার দেখে নেওয়া যাক ঠিক কতটা বাড়লো সোনার দাম। গত সেশনে ১০ গ্রাম সোনার দাম এক শতাংশ বা ৫০০ টাকার মতো পড়েছিল। গত মাসে সোনা ৫৬,২০০ টাকার রেকর্ড তৈরির পর একটি নির্দিষ্ট সীমার মধ্যেই ঘোরাফেরা করছে হলুদ ধাতূুর দাম। সোমবার এমসিএক্স সূচকে ১০ গ্রাম গোল্ড ফিউচার্সের দাম ০.৪ শতাংশ বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৫১,৫৩২ টাকা। তবে,বিশ্ব বাজারে সোনার দামের হেরফের হয়নি। এক আউন্স স্পট গোল্ডের দাম দাঁড়িয়েছে ১,৯৪১.১১ ডলার। তবে আউন্স প্রতি রুপোর দাম ০.৩ শতাংশ কমে হয়েছে ২৬.৬৮ শতাংশ।

এবার আসা যাক রুপোর প্রসঙ্গে। গত সেশনে অনেকটা পড়েছিল রুপোর দর। সেই সেশনে এক কেজি রুপোর দর ১.৫ শতাংশ বা ১,০৫০ টাকা কমেছিল। যদিও এদিন এমসিএক্স সূচকে সোনার পাশাপাশি দাম বেড়েছে রুপোরও। এক কেজির রুপোর দর ০.৬ শতাংশ বেড়ে হয়েছে ৬৮,৩৫০ টাকা।