বলিউডের অন্দরের গোপন তথ্য ফাঁস, সুরক্ষার স্বার্থে কঙ্গনাকে স্পেশাল সিকিউরিটি দিল কেন্দ্র

বেশ কয়েকদিন ধরেই বলিউড কুইন কঙ্গনা রানাওয়াতের বিস্ফোরক টুইট মন্তব্য ঘিরে জল্পনা তুঙ্গে। কাউকে রেয়াদ না করে মুখের উপর সপাটে জবাব দেওয়ার জন্যই অন্যতম ভাবে পরিচিত কঙ্গনা। তবে, সম্প্রতি অভিনেত্রীর এই স্বভাবই হয়ে উঠেছিল চিন্তার কারণ। আর তাই এবার সবদিক বিবেচনা করে কঙ্গনা রানাওয়াতের নিরাপত্তার দায়িত্ব নিল কেন্দ্রীয় সরকার।

সম্প্রতি সুশান্ত মৃত্যু রহস্যে মাদকচক্রের হয়েছে ইডি। আর সেই প্রসঙ্গে মুখ খোলেন অভিনেত্রী কঙ্গনা। বিস্ফোরক টুইট বোমা ছুড়ে অভিনেত্রী বলেন রণবীর সিং,রণবীর কাপুর,ভিকি কৌশলের রক্তের নমুনা পরীক্ষা করা হোক দাবিও তোলেন কঙ্গনা। শুধু তাই না তিনি নিজের টুইটার হ্যান্ডেলে টুইট করে লেখেন, ‘মুম্বাইতে থাকলে পাকিস্তান অধিকৃত কাশ্মীরের মতো অনুভূতি হচ্ছে’। পাশাপশি পুলিশের উপর আস্থা হারিয়েছেন এমনকি মুম্বাইতে থাকতে নিরাপত্তার অভাব বোধ করছে বলেও অভিযোগ করেন অভিনেত্রী।

কিন্তু কঙ্গনার এই মন্তব্য ভালোভাবে নেয়নি অনেকেই। কঙ্গনার এই টুইটে ক্ষোভে ফেটে পড়ে শিবসেনা। শিব সেনার রাজ্যসভার সাংসদ মুখপাত্র সঞ্জয় রাউত সুর চড়ান কঙ্গনার বিরুদ্ধে। তিনি অভিনেত্রীর বিরুদ্ধে তোপ দাগিয়ে বলেন, ‘মুম্বই পুলিশকে কার্যত অপমান করছেন বলিউড অভিনেত্রী। কঙ্গনার হাতে যদি কোনও তথ্য প্রমাণ থাকে, বলিউডের সঙ্গে মাদক কারবারীদের সম্পর্ক রয়েছে তাহলে তিনি যেন থানায় গিয়ে অভিযোগ দায়ের করেন। সঞ্জয় রাওত কঙ্গনাকে মুম্বইতে প্রবেশ করতেও না করেন।

তবে, এরপরেই অভিনেত্রী কঙ্গনা রানাওয়াতের সুরক্ষা নিয়ে চিন্তায় পড়ে কেন্দ্রীয় সরকার। কেন্দ্রিয় সরকারের পক্ষ থেকে অমিত শাহ কঙ্গনাকে ওয়াই ক্যাটাগরির সিকিউরিটি দেওয়ার কথা জানান মুম্বইতে আসার জন্য। কিছুদিন আগেই কঙ্গনা নিজেই অনুরোধ করেছিলেন যে সে বলিউড নিয়ে মুখ খুলতে রাজি আছে তবে শুধু প্রয়োজন সুরক্ষার। অভিনেত্রীর অনুরোধকে মান্যতা দিয়ে তার সুরক্ষার ব্যবস্থা করল কেন্দ্রীয় সরকার।