BREAKING: ১২ মে থেকে যাত্রীবাহী ট্রেন চলাচলের সিদ্ধান্ত রেলের

সারাদেশে চলছে তৃতীয় পর্যায়ের লকডাউন। এই লকডাউন 16 ই মে শেষ হওয়ার কথা রয়েছে। তবে এর আগে রেলপথ যাত্রীবাহী ট্রেন চালানোর সিদ্ধান্ত নিল। রেলমন্ত্রী পীযূষ গোয়েল রবিবার এটি টুইট করেছেন। শ্রমিকদের বিশেষ ট্রেন ইতোমধ্যে দেশের বিভিন্ন রাজ্যে চলছে। সেসব ট্রেনে পরিযায়ী শ্রমিকদের বাড়ি ফেরানোর ব্যবস্থা করা হচ্ছে। তবে লকডাউন শুরু হওয়ার পর থেকেই সমস্ত যাত্রী ট্রেন চলাচল বন্ধ রয়েছে।

অবশেষে রেলপথ সেই ট্রেন চালানোর পরিকল্পনা করল। প্রাথমিকভাবে প্রতিদিন ১৫ টি ট্রেন চলাচল করবে বলে রেলমন্ত্রী জানিয়েছেন। প্রাথমিকভাবে এই ট্রেনগুলি দিল্লি থেকে চলবে। এই যাত্রীবাহী ট্রেনগুলি রাজধানী শহর থেকে বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ গন্তব্যে যাবে। ট্রেন বুকিং 11 ই মে বিকাল 4 টা থেকে শুরু হবে।

দিল্লি থেকে প্রথম ট্রেনগুলি হ’ল ডিগ্রুগড়, হাওড়া, পাটনা, বিলাসপুর, রাঁচি, ভুবনেশ্বর, সেকান্দারবাদ, বেঙ্গালুরু, চেন্নাই, তিরুবনন্তপুরম, মাদগাঁও, মুম্বই সেন্ট্রা, আহমেদাবাদ এবং জম্মু তৌই।

যাদের শরীরে করোনার কোনও লক্ষণ নেই তাদের কেবল স্টেশনে প্রবেশ করতে এবং ট্রেনে উঠতে দেওয়া হবে। প্রতিটি যাত্রী স্ক্রিন করা হবে। এছাড়াও যাত্রীরা মুখোশ পরে গেলেই ট্রেনে উঠতে পারবেন। ২৫ শে মার্চ থেকে রেল পরিষেবা বন্ধ রয়েছে কোনও গণপরিবহন চলছে না। কেবল মালবাহী ট্রেন চলছিল। তবে মে মাসের শুরু থেকেই শ্রমিকদের ঘরে তুলতে বিশেষ ট্রেন চালু হয়েছে।