আমার কল রেকর্ড চেক করা হোক, করা হোক ড্রাগ টেস্ট, চ্যালেঞ্জ ছুঁড়লেন বলিউড কুইন

মঙ্গলবার গ্রেফতার করা হয় অভিনেত্রী রিয়া চক্রবর্তীকে। তবে সুশান্তের মৃত্যুর জন্য নয়। তাকে গ্রেফতার করা হয় মাদকদ্রব্যের অপব্যাবহারের জন্য।সেই তালিকায় এবার যুক্ত করা হলো বলিউড অভিনেত্রী কঙ্গনা রানাউতের নাম। তিনিও নাকি মাদকের সঙ্গে যুক্ত রয়েছেন। তাই এবার কঙ্গনার বিরুদ্ধে তদন্ত করা হবে বলে জানা স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অনিল দেশমুখ।কারণ, কঙ্গনা মুম্বাই পুলিশ প্রশাসনের বিরুদ্ধে ও বলিউড ইন্ডাস্ট্রির অনেক তারকার বিপদ ডেকে এনেছেন।

এমনকি কঙ্গনা টুইটে একবার জানিয়েওছিলেন, ‘ইন্ডাস্ট্রির প্রথম সারির ৯৯শতাংশ তারকাই মাদকের সঙ্গে যুক্ত রয়েছেন।’ তাই এই প্রসঙ্গে অনিল দেশমুখ বলেন, কঙ্গনা মেলামেশা করেন শেখর সুমনের ছেলে অধ্যয়নের সঙ্গে। অধ্যয়ন নাকি একবার সাক্ষাকারে বলেছিলেন, ‘তাকে দিকে কঙ্গনা মাদক কিনে আন্না। এমনকি তাকে নাকি কঙ্গনা জোর করে মাদকের নেশা করিয়েছিলেন।’ এসব কথা শোনার পর ফের টুইট করেন কঙ্গনা।

যেখানে তিনি লেখেন, ‘যারা আমার বিরুদ্ধে এসব মন্তব্য করেছে তাদের কোথায় আমি বেশি খুশি হয়েছি।আমার বিরুদ্ধে তদন্দ করা হোক। আমার ড্র্যাগ টেস্ট করানো হোক, এমনকি আমার কল রেকর্ডসও চেক করা হোক। আমি কোন কোন মাদকপাচারকারীর সঙ্গে কথা বলি।যদি সত্যি প্রমান হয় আমি এই কাজে যুক্ত তাহেল আমি সব অপরাধ-ভুল স্বীকার করবো।আর এখন পুলিশের সঙ্গে কথা বলার অপেক্ষায় আছি।’