মিলনেও ভাইরাস! পুরুষের বীর্যের মধ্যেও মিলল মারণ করোনা

পুরুষ বীর্যেও করোনাভাইরাস পাওয়া গিয়েছে। সম্প্রতি একদল গবেষক এ বিষয়ে গবেষণা চালিয়ে যাচ্ছিলেন। একদল চীনা গবেষক বীর্যে ভাইরাসটি খুঁজে পেয়েছিলেন। চীনে জানুয়ারী ও ফেব্রুয়ারির সময় মহামারি আরও বেশি পরিমাণে ছড়িয়ে পরে । আর সেই সময় শাংকুই মিউনিসিপ্যিাল হসপিটালে চিকিত্‍সাধীন ৩৮ জন পুরুষের উপর এই পরীক্ষা চালানো হয়। সিএনএন জানিয়েছে যে এটিতে এই ফলাফলটি পাওয়া গেছে।

শুধু তাই নয়, প্রকাশিত প্রতিবেদন অনুসারে, নতুন গবেষণায় আশঙ্কা প্রকাশ করা হয়েছে যে যৌন মিলনের মাধ্যমে এই ভাইরাসও ছড়িয়ে যেতে পারে। গবেষণা দলের মতে, পরীক্ষা করা হয়েছিল যাদের প্রায় 18 শতাংশের বীর্যতে করোনভাইরাস পাওয়া গেছে। তাদের মধ্যে এক চতুর্থাংশ গুরুতর সংক্রমণের পর্যায়ে ছিল এবং প্রায় 9 শতাংশ পুনরুদ্ধার করছে।

এটি আশ্চর্যজনক নয়, কারণ পুরুষ প্রজনন সিস্টেমে অনেকগুলি ভাইরাস বেঁচে থাকতে পারে। এর আগে পুরুষের বীর্যে ইবোলা ও জিকা ভাইরাস ছড়ানোর প্রমাণ মিলেছে, এমনকি রোগী সেরে উঠার কয়েক মাস পরও। তবে করোনাভাইরাস এভাবে ছড়িয়ে পড়তে পারে কিনা তা এখনও পরিষ্কার নয়। ভাইরাসের অস্তিত্ব মিলেছে বলেই যে তা সংক্রামক হবে এমন মনে করার কোনো কারণ নেই।

গবেষণা দলটি বলেছে, ভবিষ্যতে গবেষণা যদি প্রমাণ করে যে এসএআরএস-সিওভি -২ যৌন সংক্রমণে সক্ষম তাহলে এটি সংক্রমণ রোধে একটি গুরুত্বপূর্ণ কারণ প্রকাশ করতে পারে। গবেষকরা বিশ্বাস করেন যে যাদের বীর্যতে ভাইরাস রয়েছে তাদের এড়ানো উচিত বা এটি প্রতিরোধের উপায় হিসাবে কনডম ব্যবহার করা উচিত।