প্রয়াত অভিনেতা দিলীপ কুমারের স্ত্রী সায়রা বানু গুরুতর অসুস্থ, শ্বাসকষ্ট নিয়ে ভর্তি আইসিইউতে

68

কিছুদিন আগেই বলিউড হারিয়েছে কিংবদন্তী নক্ষত্র দিলীপ কুমার (Dilip Kumar)। তাঁর প্রয়াণের কথা তাঁর স্ত্রী অভিনেত্রী সায়রাবানু (Sairabanu)-কে জানাতেই তিনি বলেছিলেন, তাঁর বেঁচে থাকার কারণ চলে গেল। এই ঘটনার এক মাসের মধ্যেই সায়রাবানুকে ভর্তি করা হল আইসিইউ-তে।

রক্তচাপজনিত সমস্যা নিয়ে তিন দিন আগে মুম্বইয়ের খারে হিন্দুজা হাসপাতালে সায়রাবানুকে ভর্তি করা হয়েছিল। কিন্তু শারীরিক অবস্থার ক্রমশ অবনতি হওয়ায় পয়লা সেপ্টেম্বর তাঁকে ইনটেনসিভ কেয়ার ইউনিট অর্থাৎ আইসিইউ-তে স্থানান্তরিত করা হয়েছে। হাসপাতাল সূত্রে প্রাপ্ত খবর অনুযায়ী, সায়রাবানুর শ্বাসকষ্ট হচ্ছে। ফলে তাঁকে অক্সিজেন দেওয়া হচ্ছে। এছাড়াও তাঁর কিছু শারীরিক পরীক্ষা করার নির্দেশ দিয়েছেন চিকিৎসক। তবে এই মুহূর্তে বর্ষীয়ান অভিনেত্রীর শারীরিক পরিস্থিতি স্থিতিশীল।

সায়রাবানুর পরিবারের ঘনিষ্ঠজনরা জানিয়েছেন, দিলীপ কুমারের মৃত্যু সায়রাবানুকে প্রভাবিত করেছে। তিনি নিজে দিলীপ কুমারের খেয়াল রাখতেন। একজন মায়ের মতো তিনি দিলীপসাবকে ঘিরে থাকতেন। কিন্তু জুলাই মাসে দিলীপ কুমারের মৃত্যুর পর থেকেই সায়রাবানু মানসিকভাবে ভেঙে পড়েন। তার সাথেই শারীরিক ভাবেও তাঁর বিভিন্ন সমস্যা দেখা দেয়। তবে সায়রাবানু এক সপ্তাহের মধ্যেই হাসপাতাল থেকে বাড়ি ফিরতে পারবেন বলে হিন্দুজা হাসপাতালের চিকিৎসকরা আশাবাদী।

7 ই জুলাই 98 বছর বয়সে প্রয়াত হন দিলীপ কুমার। দীর্ঘদিন ধরেই তিনি কিডনির সমস্যায় ভুগছিলেন। জুহুর কবরস্থানে দিলীপকুমারের শেষকৃত‍্যে কালো বোরখা পরে উপস্থিত ছিলেন সায়রাবানু। মাত্র বাইশ বছর বয়সে সায়রাবানু বিয়ে করেছিলেন দ্বিগুণ বয়সী দিলীপ কুমারকে। ‘গোপী’, ‘বৈরাগ’-এর মতো একাধিক ফিল্মে একসঙ্গে কাজ করেছিলেন দিলীপ ও সায়রা। বিয়ের পরেও পর্দানশীন থাকেননি সায়রা। দিলীপ কুমারের উৎসাহে তিনি ফিল্মে অভিনয় করেছিলেন। কিন্তু হঠাৎই দিলীপ সাব অসুস্থ হয়ে পড়লে তাঁর খেয়াল রাখার জন্য অভিনয় ছেড়ে দিয়েছিলেন সায়রাবানু।

আরও পড়ুন:   কর্ণের সন্তানের মা হতে চলেছেন স্বস্তিকা, ছোট করে ছেঁটে ফেললেন নিজের চুল