খেলাধুলা

বাজপাখির মতো উড়ে অবিশ্বাস্য ক্যাচ নিলেন দীনেশ কার্তিক, মুহূর্তে ভাইরাল ভিডিও

ব্যাটিংয়ের তেমন ফর্মে না থাকায় তাকে বহু গঞ্জনা ও সমালোচনা সইতে হয়েছে। তাকে নিয়ে সমালোচনা হওয়ায় দীনেশ কার্তিক নিজে থেকেই অধিনায়কত্ব ছেড়ে দেয়। তাকে নিয়ে যখন সমালোচনা তুঙ্গে তখন তিনি যে ধোনির থেকে কম নয় তা প্রমাণ করলেন। অনেকের মতে তিনি ছাপিয়ে যেতে পারে ধনীকে।

গোটা ক্রিকেটমহল মুগ্ধ তিনি যেভাবে রয়্যালস ম্যাচে বেন স্টোকসকের ক্যাচটি তালুবন্দি করেছেন তা দেখে। দীনেশ কার্তিকের এই কাজটি সেরা ক্যাচ বলে গণ্য হচ্ছে টুইটারে।

এই দুটো টিমই মাস্ট উইন ম্যাচে খেলতে নেমেছিলেন। রাজস্থান দীনেশ কার্তিকের দেওয়া ঝটকা থেকে বের হতে পারেননি, দীনেশ কার্তিক ম্যাচের শুরুতেই বেন স্টোকসকে আউট করে সবাইকে এক ঝটকা দেন।বেন স্টোকস নায়ক হয়ে উঠেছিলেন কিংস ইলেভেন পাঞ্জাব ও মুম্বাই ইন্ডিয়ান্সের বিরুদ্ধে। তবে এদিন মাত্র ১১ বলে ১৮ রান করলেন কেকেআর এর বিপক্ষে।

প্যাট কামিন্স বোলিং করছিলেন রাউন্ড দ্য উইকেটে। বেন স্টোকস স্ট্রোক নিতে গিয়েছিলেন অফ স্টাম্পের বাইরের বলকে তাড়া করে। বলটি প্রথম স্লিপ দিয়ে বেরিয়ে যাচ্ছিল ব্যাটের কানায় লেগে। ঠিক সেই মুহুর্তে কার্তিক তার ম্যাজিক দেখালেন। দীনেশ কার্তিক প্রথম স্লিপ থেকেই বলটিকে তালুবন্দি করলেন নিজেকে শূন্যে ভাসিয়ে দিয়ে। বলা হচ্ছে এই ক্যাচটি টুর্নামেন্টের সেরা ক্যাচ। ২০০৭ সালের T20 বিশ্বকাপের কথা মনে পড়ে যাচ্ছে সকল ক্রিকেটপ্রেমীদের। সেই ম্যাচে দিনেশ কার্তিককে এমনই একটি ক্যাচ ধরতে দেখা গেছে সাউথ আফ্রিকার বিরুদ্ধে।

দীনেশ কার্তিক বাজ পাখির মতো ক্যাচটিকে তালুবন্দি করার পর পরই উত্তেজনার বশে আরব টিন ব্যাটসম্যানের উইকেট তুলে নেন। স্টিভ স্মিথকে কামিন্স আউট করেন তার তৃতীয় ওভারের শেষ বলে। রিয়ান পরাগ কামিন্সের শিকার হন ঠিক পরের ওভারেই। সঞ্জু স্যামসনকে মাঝে পাঠানো হয় শিবম মাভি প্যাভিলিয়নে। রাজস্থান ৩৭/৫ পৌঁছে যান পাওয়ার প্লে রাউন্ডেই। ব্যাট হাতে তেমন পারফরম্যান্স না দেখাতে পারলেও তিনি স্যামসনয়ের ক্যাচটি নেন বেন স্টোকসয়ের ক্যাচের পরে।

Related Articles

Back to top button