বিনোদন

সাক্ষাৎ কল্পতরু, এবার গরীব ছাত্র-ছাত্রীদের পড়াশুনার দায়িত্ব নিলেন সোনু সুদ

বর্তমানের কঠিন সময়ে গরীবের ভগবান রূপে সাধারণের পাশে দাঁড়িয়েছেন অভিনেতা সোনু সুদ। পরিযায়ী শ্রমিকদের বাড়ি ফেরানোর ব্যবস্থা থেকে দুস্থ মানুষের মুখে খাবার তুলে দেওয়া এমনকি অসুস্থ রোগীকে চিকিৎসা করার জন্য আর্থিক সাহায্য কঠিন পরিস্থিতিতে সাধারণের দিকে সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দিতে দুবার ভাবেননি অভিনেতা সোনু সুদ। আর এবার কল্পতরু হয়ে দরিদ্র ছাত্রদের শিক্ষার ব্যবস্থা করলেন সোনু সুদ।

এখন সোনু সুদ শুধু আর বলিউড অভিনেতা নন, বরং তিনি বাস্তব জীবনের নায়ক হয়ে উঠেছেন সকলের কাছে। তিনি যেভাবে যেকোনও সমস্যায় সাধারণ মানুষের পাশে দাঁড়িয়েছেন এখনও দাঁড়াচ্ছেন এভাবে সত্যিই অন্য কেউ হয়তো করেনি। পরিযায়ী শ্রমিকরা জীবনের ঝুঁকি নিয়ে হেঁটে বাড়ির ফিরছে এই ছবি দেখা মাত্রই সরকার কিছু করার আগেই তিনি নিজের চেষ্টায় বাড়ি পৌঁছে দিতে শুরু করেন শ্রমিকদের। হাজার হাজার মানুষকে তিনি বাড়ি পৌঁছে দিয়েছেন। শুধু তাই নয় যদি তাকে কেউ তার কাছে টুইটারে সাহায্যে চায় দু বারও না ভেবে তাকে সাহায্য করতে চলে যায় অভিনেতা। এখানেই শেষ নয় সম্প্রতি বর্তমানের কঠিন পরিস্থিতিতে লড়ার জন্য করোনা যোদ্ধাদের ২৫ হাজার মাস্ক দিয়েছেন অভিনেতা সোনু। আর এবার দরিদ্র, মেধাবী ছাত্রছাত্রীর উচ্চশিক্ষার জন্য স্কলারশিপ ঘোষণা করলেন সোনু সুদ।

সম্প্রতি একটি ছবি দেখতে পান অভিনেতা। যেখানে দেখা যাচ্ছে দুই কিশোরী ফেলে মাঠে চাষ করছে। ছবি দেখেই তিনি বলেছেন, ওরা পড়ুক, মাঠ চষবে ট্রাক্টর। এমনকি স্মার্টফোনের অভাবে লেখাপড়া শিকেয় উঠেছে সে কথা শোনা মাত্রই অভিনেতা সোনু গ্রামের সব ছাত্রের হাতে পৌঁছে দিয়েছেন স্মার্টফোন। আর এবার দরিদ্র, মেধাবী ছাত্রছাত্রীর উচ্চশিক্ষার জন্য সোনু- হিন্দুস্থান বাচেগা তবহি যব পড়েগা সবহি অভিযান শুরু করলেন অভিনেতা।

এই প্রসঙ্গে সোনু সুদ জানান, যারা স্কুল শিক্ষা শেষ করেছে কিন্তু আর্থিক কারণে কলেজের শিক্ষা গ্রহণ করতে পারছেনা তাদের জন্যেই এই ব্যবস্থা। নিশ্চয়ই জানতে ইচ্ছা করছে কিভাবে আবেদন করা যাবে এই স্কলারশিপের জন্য। যদি স্কলারশিপের জন্য আবেদন করতে চান তাহলে আবেদন পাঠাতে হবে [email protected] -এই ঠিকানায়। আর তারপরেই সোনুর টিমের পক্ষ থেকেই যোগাযোগ করা হবে আবেদনকারীর সঙ্গে। এই প্রসঙ্গে সোনু সুদ ট্যুইট করে লেখেন, ‘উচ্চশিক্ষার জন্য সার্বিক স্কলারশিপের ব্যবস্থা করছি। আমি বিশ্বাস করি আর্থিক পরিস্থিতির কারণে কেউ লক্ষ্যভ্রষ্ট হবে না আর কেউ’।

Related Articles

Back to top button