বিনোদন

রূপে লক্ষ্মী গুণে সরস্বতী, নিজের আপন বোনকে বিয়ে করেছেন ক্রিকেটার শাহিদ আফ্রিদি

Advertisements

Advertisements

শাহিদ আফ্রিদি (Shahid Afridi) আমাদের প্রতিবেশী দেশ পাকিস্তানের প্রাক্তন ক্রিকেটার, তিনি পাকিস্তানি জাতীয় ক্রিকেট দলের অধিনায়কের ভূমিকাও পালন করেছেন। তিনি ১৯৯৬ সালে ওডিআই (ODI) ডেবিউ করেছিলেন, ১৯৯৮ সালে টেস্ট (Test) ডেবিউ করেছিলেন ও ২০০৬ টি-টোয়েন্টি (T-20) ডেবিউ করেছিলেন। শাহিদ একজন ডানহাতি লেগ স্পিনার ও ডানহাতি ব্যাটসম্যান, তবে তিনি অলরাউন্ডার হিসেবেও খেলেছেন।

Advertisements

Advertisements

শাহিদি আফ্রিদি তাঁর দুর্দান্ত ব্যাটিং দক্ষতার জন্য ‘বুম বুম’ নামে পরিচিত ছিলেন, মূলত পারদর্শীভাবে ছয় অর্থাৎ ওভার বাউন্ডারি হাঁকানোর জন্য‌ই তিনি এই নাম অর্জন করেছিলেন। তিনি তাঁর দীর্ঘ কর্মজীবনে মোট সাতাশটি (২৭) টেস্ট ম্যাচ, তিনশো আটানব্বইটি (৩৯৮) ওডি‌আই ম্যাচ ও নিরানব্বইটি (৯৯) ম্যাচ খেলেছেন। শাহিদ ২০১৮ সালের ৩১ মে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট থেকে অবসর গ্রহণ করেন, তবে এর আগেও তিনি আরো চারবার অবসর গ্রহণ করে আবার ফিরে এসেছিলেন।

খেলোয়াড় জীবন ছাড়াও নিজের ব্যক্তিগত জীবনের কারণেও শাহিদ বারংবার খবরের শিরোনামে উঠে এসেছেন। বিশেষত নিজের মামাতো বোনের সঙ্গে বৈবাহিক সম্পর্কের কারণে তাঁকে বহু সমালোচিত হতে হয়েছে। ২০০০ সালের ২১ অক্টোবর মামাতো বোন নাদিয়া আফ্রিদির (Nadia Afridi) সঙ্গে বিবাহবন্ধনে আবদ্ধ হন শাহিদ। তাঁর পিতাই এই বিয়ের সম্বন্ধ স্থির করেছিলেন। শাহিদ এক ইন্টারভিউতে জানিয়েছেন, কোনো এক ট্যুরের সময় তিনি তাঁর বাবাকে মজা করে বিয়ের জন্য মেয়ে খুঁজে রাখতে বলেছিলেন, আর ট্যুর থেকে ফেরার পরেই মামাতো বোন নাদিয়ার সাথে তাঁর বিয়ের কথা পাকা হয়ে যায়। বর্তমানে শাহিদ ও নাদিয়া সুখী দাম্পত্যজীবন পালন করেছেন, তাঁদের পাঁচটি কন্যাসন্তান রয়েছে। তবে নিজের মামাতো বোনকে বিয়ে করার জন্য শাহিদকে প্রায়শই বিভিন্ন কটাক্ষমূলক মন্তব্য ও নিন্দার সম্মুখীন হতে হয়।

Related Articles