অর্থ সংকট দূর করতে ভাদ্র মাসের প্রতি বৃহস্পতিবার চাল দিয়ে করুন এই ঘরোয়া টোটকা, দেখুন বিস্তারিত

41

ধনী হতে কে না চায় সকলেরই ইচ্ছা থাকে ধনী(Rich man) হ‌ওয়ার। মুখে প্রকাশ না করলেও বেশিরভাগ মানুষেরই মনের সুপ্ত বাসনা হলো আর্থিক সমৃদ্ধি হোক, সম্পদ বাড়ুক। অর্থনৈতিক সমস্যার সাথে সাথে তাল মিলিয়ে বাড়িতে শারীরিক মানসিক সমস্যা লেগে থাকে। অভাব থেকে সৃষ্টি হয় নানান রকম কলহের, সম্পর্কের বিচ্ছেদ আসে এবং মানসিক দূরত্ব সৃষ্টি হয়। তবে এই সমস্ত সমস্যার সমাধানও আছে। জ্যোতিষশাস্ত্র মতে বলা হয় কিছু ঘরোয়া টোটকা(Bengali totka) আছে যেগুলি মেনে চললে অর্থাভাব কেটে যাবে এবং সংসারে শান্তি (peace)ফিরে আসবে।

আরও পড়ুন:   আজ ১৫ ই সেপ্টেম্বর মঙ্গলবার, এই সমস্ত রাশির ব্যক্তিদের জন্য আজকের দিনটি খুবই শুভ

অনেক মানুষ আছেন যারা ঘরোয়া টোটকায় বিশ্বাসী নন, তাদেরকে এটাই বলতে হয় যে, বিশ্বাসে মিলায় কৃষ্ণ তর্কে বহুদূর। সহজ-সরল হাতের কাছে থাকা ঘরোয়া টোটকা ব্যবহার করে যদি দীর্ঘদিনের সমস্যা সমাধান হয় তাহলে ক্ষতি কি? একবার বিশ্বাসের সাথে প্রয়োগ করে দেখুন ই না, বলা তো যায় না পাইলেও পাইতে পারো অমূল্য রতন!

শ্রাবণ মাস শিবের মাস(lord Shiva) হিসেবে পরিচিত। আর ঠিক এর পরের মাসটি অর্থাৎ ভাদ্র মাসটি দেবী লক্ষ্মীর(Goddess Lakshmi)
মাস বলে পরিচিত। তাই এই মাসের বৃহস্পতিবার (Thursday) যদি ঘরে থাকা চাল(chal totka) দিয়ে একটি সহজ টোটকা ব্যবহার করেন তাহলে আপনার জীবনে অর্থাভাব দূরে চলে যাবে এবং চাকরির ক্ষেত্রে হওয়া যাবতীয় সমস্যা কেটে যাবে।

আরও পড়ুন:   শেষের পথে 'কি করে বলব তোমায়' ধারাবাহিক, নতুন রুপে পর্দায় ফিরছেন অভিনেত্রী স্বস্তিকা দত্ত

প্রথমে, আপনি যে পাত্রে চালে রাখেন সেই পাত্রের চাল কিছুটা নিয়ে নিন। একটি গ্লাস নিয়ে সেটি চাল দিয়ে ভর্তি করার পর সেখানে ছয়টি হলুদের টুকরো এবং ছোট এক টাকার কয়েন রেখে দিন। এবার এই চাল পূর্ণ গ্লাসটি আপনার বাড়ির দক্ষিণ পূর্ব দিকের কোণে রেখে দিন। চার পাঁচ মাস পর এই গ্লাস থেকে চাল নিয়ে আপনি সেই চাল পাখিদের খাওয়ান। অথবা এই চালের ভাত রান্না করে গরিব দুঃখী অসহায় মানুষদের খাওয়ান। এরকমটা করলে আপনার অর্থভাগ্যের উন্নতি (money increase)হবে। তবে এই গ্লাস রাখার কথাটি আপনি কাউকে বলবেন না, এই বিষয়টা আপনাকে পুরোটাই গোপনে রাখতে হবে তবে মনষ্কামনা পূর্ণ হবে।