Gold Price: পুজোর আগে সস্তা সোনার দাম, রেকর্ড দরের থেকে কমল ১০ হাজার টাকা

1857

আজ সোমবার, সপ্তাহের প্রথম কর্ম দিবস। সপ্তাহের শুরুতে ভারতীয় বাজারে ফের দুর্বল সোনার দাম এবং রুপোর দাম। সোমবার এমসিএক্স সূচক অনুযায়ী, ১০ গ্রাম গোল্ড ফিউচার্সের দাম সামান্য বেড়ে নতুন দাম হয়েছে ৪৬,৫৪৩ টাকা। অন্যদিকে, রুপোর দামের হেরফের লক্ষ্য করা যায়নি। ১ কিলোগ্রাম রুপোর দাম রয়েছে ৬০,৫৩০ টাকা।

বিশ্ব বাজারেও দুর্বল রয়েছে সোনার দাম। এক আউন্স স্পট গোল্ডের দাম কিছুটা কমে নতুন দাম হয়েছে ১,৭৫৯ ডলার। গত দুটি সেশনে পতনের পর আপাতত মার্কিন ডলার কিছুটা হলেও ঘুরে দাঁড়িয়েছে। জিয়োজিত্‍ ফিনান্সিয়াল সার্ভিসের তরফ থেকে জানানো হয়েছে, আর্থিক বৃদ্ধি নিয়ে আশঙ্কার মধ্যে চলতি সপ্তাহের শেষ পর্যন্ত মার্কিন কর্মসংস্থান সংক্রান্ত পরিসংখ্যানের দিকে নজর রাখছেন বিনিয়োগকারীরা। যদি এক আউন্স স্বর্ণ ধাতু ১,৭৬০ ডলারের সমর্থন পেতে থাকে, তাহলে ঘুরে দাঁড়াতে পারে স্বর্ণ ধাতু। অন্যান্য মূল্যবান ধাতুর মধ্যে রুপোর দামেরও পতন লক্ষ্য করা গিয়েছে। এক আউন্স রুপোর দাম ০.১ শতাংশ কমে নতুন দাম হয়েছে ২২.৫১ ডলার।

আরও পড়ুন:   মধ্যবিত্তের জন্য বড় সুখবর, ফের অনেকটাই কমল সোনার দাম

আইআইএফএল সিকিউরিটিজের অনুজ গুপ্তর কথায়, চলতি মাসের প্রথম দু সপ্তাহ অন্তত এমসিএক্স সূচকে ১০ গ্রাম সোনার দামের গ্রাফ নিম্নমুখী হয়ে ৪৫,৫০০ টাকা থেকে ৪৫,০০০ টাকায় চলে আসতে পারে। কারণ সেই সময় মার্কিন ডলার আরও শক্তিশালী থাকার সম্ভাবনা রয়েছে। যখনই মার্কিন ডলারের কোনো রকম দুর্বলতা লক্ষ্য করা যায়, তাহলে আন্তর্জাতিক বাজারে এক আউন্স সোনার দাম ১,৭৫০ ডলার থেকে ১,৭৬০ ডলার পার করে যেতে পারে। যা পরবর্তী মাসে ১,৮০০ ডলার থেকে ১,৮৫০ ডলারের স্তরে ছুঁয়ে ফেলার সম্ভাবনা আছে। যার প্রভাব হয়তো লক্ষ্য করা যেতে পারে ভারতীয় বাজারেও। পরবর্তী মাসে এমসিএক্স সূচক অনুযায়ী ১০ গ্রাম সোনার দাম ৪৮,০০০ টাকা থেকে ৪৮,৫০০ টাকার কাছাকাছি পৌঁছে যাওয়ার সম্ভবনা রয়েছে।

আরও পড়ুন:   তরতরিয়ে দাম কমলো সোনার, পতন রুপোর দামেও

একইসুরে গঙ্গানগর কমিউনিটি লিমিটেডের অমিত খাড়ে জানিয়েছেন, এমসিএক্স সূচকে ১০ গ্রাম ৪৫,০০০ টাকা থেকে ৪৬,০০০ টাকার মধ্যে যদি থাকে সোনার বিনিয়োগকারীরা ভালো সুযোগ পাবেন। যা রেকর্ড দরের থেকে কম হবে প্রায় ১০,০০০ টাকা। আগামী তিন মাসে ১০ গ্রাম সোনার দাম ৪,০০০ থেকে ৫,০০০ টাকা পর্যন্ত দাম বাড়তে পারে।