টানা ৪ দিন ভারী পতন সোনার দামে, পাল্লা দিয়ে কমছে রুপোর দামও

91

পরপর চার দিন ধরে ভারতীয় বাজারে দুর্বল থাকল সোনা। আজ বৃহস্পতিবার এমসিএসএক্স সূচকে ১০ গ্রাম গোল্ড ফিচারসের দাম হয়েছে ৪৭,০৬৩ টাকা। কমেছে রুপোর দাম ও। প্রতি কিলোগ্রাম রুপোর দাম হয়েছে ৬৩,৭৯৫ টাকা।

আগেরবারের সেশনেও সোনার দাম বেশ দুর্বল ছিল। বিশেষজ্ঞদের মতে শক্তিশালী টাকা ও দুর্বল আন্তর্জাতিক বাজারের ফলে ভারতেও এরকম দূর্বলতার প্রবণতা বাড়ছে। বিশেষত ভারতের সোনার দাম এর ১০.৭৫ শতাংশ আমদানি শুল্ক এবং ৩% জি এস টি ধরা হয়েছে। এর ফলে যদি টাকা শক্তিশালী হয় তাহলে ভারতীয় বাজারে সোনার দাম কম হয়ে যায়। সোনার কেনাবেচা হয় ডলারের মাধ্যমে। অন্যদিকে গত সেশন এর উপর দাম বেড়েছিল প্রায় ০.৭৬ শতাংশ।

আরও পড়ুন:   ফের খারাপ খবর! আত্মহত্যা করলেন টলিউড অভিনেত্রী, শোকের ছায়া অভিনয় জগতে

আপাতত বিশ্ব বাজারে সোনার দাম মোটামুটি একই রয়েছে। ১ আউন্স গোল্ড এর0 দাম রয়েছে ১,৮১৪.৫৪ ডলার। জিও জিৎ ফিন্যান্সিয়াল সার্ভিসেস তরফ থেকে বলা হয়েছে সোনার দামের উত্থান-পতন প্রাথমিকভাবে হতে পারে ১p আউন্স সোনার দাম ১,৮০০ ডলারের উপরে থাকে তাহলে হলুদ ঘুরে দাঁড়ানোর সম্ভাবনা দেখা যেতে পারে। তবে এক ধাক্কায় ১,৭৮০ ডলারের নিচে নেমে গেলে চাপ বাড়ার আশঙ্কা রয়েছে। রুপোর দামেরও হেরফের অতটা লক্ষ্য করা যায়নি। প্রতি আউন্স রুপোর দাম রয়েছে ২৪.১৭ ডলার। ডলার সূচক সামান্য বেড়ে হয়েছে ৯২.৫২৮ । যা অন্যান্য সপ্তাহের নিরিখে সর্বনিম্ন স্তরে রয়েছে।

আরও পড়ুন:   ভয়াবহ বাইক দুর্ঘটনায় মারা গেলেন জনপ্রিয় রিপোর্টার, শোকের ছায়া সাংবাদিক মহলে!

বিশেষজ্ঞদের আশঙ্কা আগামীকাল অর্থাৎ শুক্রবার কর্মসংস্থান সংক্রান্ত গুরুত্বপূর্ণ মার্কিন রিপোর্টের আগে বিনিয়োগকারীরা খুব ভেবেচিন্তে এগোবেন। কারণ সেই রিপোর্টের মাধ্যমে মার্কিন কেন্দ্রীয় ব্যাংক ফেডারেল রিজার্ভের পরবর্তী পদক্ষেপের আঁচ লক্ষ্য করা যাবে। একাংশের মতে মার্কিন কর্মসংস্থান সংক্রান্ত রিপোর্টের ওপর ভিত্তি করেই আর্থিক প্যাকেজে কিছু কাটছাঁট করার কথা ভাবছে মার্কিন কেন্দ্রীয় ব্যাংক।