রাজ্য

ফের পতন সোনালী ধাতুর দামে, রইল কলকাতায় ১০ গ্রাম সোনার বাজারদর

বাস্তবিকপক্ষে, সোনা-রুপো প্রভৃতি মূল্যবান ধাতুর দাম অধিকাংশ মানুষের নাগালের বাইরে থাকে। তবে অনেক সময় এই ধাতুগুলির দামে অনেকবার পরিবর্তন আসে। বিশ্ব বাজারের দামের ওপর নির্ভর করে ভারতীয় বাজারেও দামের পরিবর্তন ঘটে। চলতি সপ্তাহের গত বৃহস্পতিবারে দাম হ্রাস পাওয়ার পর গতকাল অর্থাৎ শুক্রবার পুনরায় সোনা ও রুপোর দামের পতন ঘটেছে।

গত বাণিজ্যিক দিনে ১০ গ্রাম সোনার দাম ছিল ৪৬,৭১৬ টাকা। শুক্রবার ভারতবর্ষের রাজধানী দিল্লিতে সোনার দাম ৩০১ টাকা কমে হয়েছে ৪৬,৪১৫ টাকা। বিশেষজ্ঞরা জানিয়েছেন, ভারতীয় টাকার দর বৃদ্ধিও ভারতে সোনার দাম কমে যাওয়ার আরেকটি কারণ। শুক্রবার মার্কিন ডলারের ক্ষেত্রে ভারতীয় টাকার ১১ পয়সা বৃদ্ধি হয়েছে, পৌঁছেছে ৭৪.৩১ টাকায়। বিশ্ববাজারে আউন্সপ্রতি সোনার দাম হয়েছে ১,৭৮৯ ডলার।

আরও পড়ুন:   Gold Price: হুড়মুড়িয়ে কমে গেল স্বর্ণের দাম, ২২-২৪ ক্যারেট সোনার দাম কমল ১০,২৭৮ টাকা

ফিউচার ট্রেডে গত শুক্রবার ৯৬ টাকা দাম কমে গিয়ে ১০ গ্রাম সোনার দাম হয়েছে ৪৭,৩৫৫ টাকা। মাল্টি কমোডিটি এক্সচেঞ্জে ফেব্রুয়ারির ডেলিভারির কারণে চুক্তিসমূহ ০.২% অর্থাৎ ৯৬ টাকা কমে প্রতি ১০ গ্রাম সোনা ৪৭,৩৫৫ টাকায় লেনদেন করেছে।

আরও পড়ুন:   Gold Price: পুজোর আগে সস্তা সোনার দাম, রেকর্ড দরের থেকে কমল ১০ হাজার টাকা

এছাড়াও, পশ্চিমবঙ্গের রাজধানী কলকাতাতে গত শুক্রবার ১০ গ্রাম সোনার দাম হয়েছে ৪৮,১০০ টাকা। বাণিজ্যের রাজধানী মুম্ব‌ইয়ে প্রতি ১০ গ্রাম পিছু সোনার দাম দাঁড়িয়েছে ৪৮,৪৫০ টাকায়।

অপরদিকে, ফিউচার বাণিজ্যে আরেক মূল্যবান ধাতু রুপোর দাম ৩৬ টাকা কমে কেজি প্রতি ৬০,৩৯০ টাকা হয়েছে। মাল্টি কমোডিটি এক্সচেঞ্জে ডিসেম্বর ডেলিভারির জেরে রুপোর চুক্তি ৩৬ টাকা বা ০.০৬% কমে প্রতি কেজিতে দাঁড়িয়েছে ৬০,৩৯০ টাকা। আন্তর্জাতিক বাজারে রুপোর দাম কমে হয়েছে আউন্স পিছু ২২.০৮ ডলার।

আরও পড়ুন:   হুড়মুড়িয়ে কমে গেল স্বর্ণের দাম, ২২-২৪ ক্যারেট সোনায় কমল ১১,৬৫০ টাকা

গত শুক্রবার দিল্লিতে রুপোর দাম ৪০২ টাকা কমে ৫৯,০৪৪ টাকা কেজি প্রতি হয়েছে। গত বাণিজ্যিক দিনে, রুপোর প্রতি কেজির দাম ছিল ৫৯,৪৪৬ টাকা। শুক্রবার কলকাতায় প্রতি কেজি রুপোর দাম ছিল ৬০,৪০০ টাকা এবং মুম্ব‌ইয়ে প্রি কেজি রুপোর দাম ছিল ৫৯,৮০১ টাকা।

Related Articles

Back to top button