অর্থনীতি

২ মাসে সবথেকে সস্তা হল সোনালী ধাতু্র দাম, রেকর্ড দরের থেকে কমল ৯০০০ টাকা

সপ্তাহের শুরুতেই আমজনতার জন্য সুখবর। সামনে আসতে চলেছে বিয়ের মরসুম। ফলে মধ্যবিত্ত বাঙালি মেয়ের মা বাবার চাপ কম পড়তে চলেছে। তার কারণ সপ্তাহের শুরুতেই ভারতীয় বাজারে কমল সোনা এবং রুপোর দাম। সোমবার এমসিএক্স সূচকে ১০গ্রাম গোল্ড ফিউচার দাম কমলো . ১৬ শতাংশ। যার বর্তমান বাজারমূল্য হল ৪৭,৩৭৫ টাকা। একইসাথে রুপোর দাম ০.৩১ শতাংশ কমে ৬০,৪২০ টাকায় দাড়িয়েছে।

গত শুক্রবার বাজার বন্ধ থাকার সোনার দামের কোন হেরফের হয়নি। নতুন বছরের শুরু থেকেই সোনার দাম নিম্নমুখী। কিন্তু আগের বছর ডিসেম্বর মাসে ১০ গ্রাম সোনার দাম পৌঁছেছিল ৪৮,৭০০ টাকায়। ২০২০ সালে আগস্ট মাসে ১০গ্রাম সোনার দাম পৌঁছেছিল ৫৬,২০০ টাকায়। বর্তমানে স্বর্ণ ধাতুর দাম রেকর্ড দরের নিরিখে কম রয়েছে ৯,০০০ টাকার মতো। ওদিকে গত সপ্তাহান্তে রুপোর দাম বেড়েছিল ০.৪ শতাংশের মতো। স্বস্তিকা ইনভেস্টমেন্ট কমোডিটি অ্যান্ড কারেন্সির হেড অভিষেক চৌহানের কথানুযায়ী, ‘এমসিএক্স সূচকে আপাতত ৪৬,৮০০ টাকায় সমর্থন পাচ্ছে সোনা। বাধা পাচ্ছে ৪৯,০০০ টাকায়। রুপো ৫৮,৮০০ টাকায় সমর্থন পাচ্ছে। বাধা পাচ্ছে ৬১,১০০ টাকায়।’

আরও পড়ুন:   কর্মসাথী প্রকল্পে আবেদন শুরু, বেকার যুবক যুবতীরা পাবেন ২ লক্ষ টাকার সাবসিডি

তবে এরই মধ্যে বিশ্ব বাজারে সোনার দাম কিছুটা হলেও বেড়েছে। এক্ষেত্রে ১ আউন্স সোনার দাম১, ৭৯৫ ডলার। সম্প্রতি বিশ্ব বাজারে সোনার দাম নিয়ে মাই গোল্ডকার্টের অধিকর্তা বিদিত গর্গ বলেন, মার্কিন কেন্দ্রীয় ব্যাংক ফেডারেল রিজার্ভের অবস্থানের পর প্রত্যাশার তুলনায় মার্কিন কর্মসংস্থানের উত্থান কম ছিল। এটি মূলত প্রভাব ফেলেছে বিশ্ববাজারে। বর্তমানে বিশ্ব বাজারে এক আউন্স সোনার (স্পট গল্ড) দাম ১,৭৮৩ থেকে ১,৮১০ ডলারের মধ্যে ঘোরাফেরা করছে। তবে গ্রাফ যদি উপর দিকে থাকে তাহলে সে ক্ষেত্রে সোনার দাম কুড়ি থেকে ত্রিশ ডলার পর্যন্ত বাড়তে পারে।

Related Articles

Back to top button