Homeবিনোদনপুঁচু সোনাকে মিষ্টি বউদির কোল থেকে ছিনিয়ে নিজের কাছে রাখতে চায় গুণগুণ,...

পুঁচু সোনাকে মিষ্টি বউদির কোল থেকে ছিনিয়ে নিজের কাছে রাখতে চায় গুণগুণ, খড়কুটো পরিবারে নতুন টানাপোড়েন

বারের খড়কুটো পরিবারে নতুন টানাপোড়েন। বেশ কদিন আগেই সৌজন্যের বৌদি ভাই সদ্য মা হয়েছে। জন্ম হয়েছে এক ফুটফুটে সন্তানের। তবে সেই সন্তানকে আপাতত কাজ ছাড়া করতে নারাজ গুনগুন। শত বুঝিয়েও আর পারা যাচ্ছে না।

মান অভিমান সুখ দুঃখ সবকিছু কাটিয়ে আবার এক হয়েছিল সৌজন্য এবং গুনগুন। তবে বেশ কিছুদিন সংসার করতে না করতেই আবার চলে এলো নতুন ঝামেলার সূত্রপাত। গুনগুন (Gungun) বরাবরই ছেলেমানুষ, সহজ জিনিসটা সহজে বুঝতে পারে না এতটাই ছেলেমানুষি করে সে। সদ্যোজাত সন্তানকে বৌদি ভাইয়ের কল থেকে কেড়ে নেয়ার শূন্যতা সৃষ্টি হয়েছে সদ্য মা হওয়া বৌদি ভাইয়ের। যার জন্য একাকীত্বতায় ভুগছে তার মায়ের মন। অন্যদিকে একেবারে নিজের বাচ্চার মত ট্রিট করছে বৌদি ভাইয়ের সন্তানকে। বাবিন (Babin) অর্থাৎ সৌজন্যে (Soujanya) আদেশ দিয়ে বলছে সে যা যা বলবে তাই যেন লিস্ট ধরে মিলিয়ে কালকে বেবির জন্য এনে দেয়।

অন্যদিকে সদ্য মা হওয়া বৌদি ভাই ঘরে গুমড়ে গুমড়ে কাঁদছে। যখন বাড়িতে কেউ ছিল না তখন প্রচন্ড ওপেন উঠেছিল বৌদি ভাইয়ের। সেই সময়ে গুনগুন একা সমস্ত কিছু সামলেছে। আজ গুন গুন এর জন্যেই বৌদিভাই এবং তার সন্তান সুস্থ রয়েছে। একথা বৌদিভাই হারে হারে মেনে নিচ্ছে। তবে তার একটাই বক্তব্য, অন্তত গুনগুন যেন তার সন্তানকে অন্নপ্রাশনের আগে অবধি তার কাছে রাখে। এরপর যদি তার সন্তানকে গুনগুন নিজের কাছে রাখতে চায় তাতে কোনো আপত্তি নেই বৌদিভাই এর।

এদিকে বাবিন যখন বলে যে এখন অনেক রাত হয়েছে তাই বৌদিভাইয়ের কাছে দিয়ে আসা উচিত। সেই কথা শুনে গুনগুন বলে যে বেবি তার কাছেই থাকবে ও তাকে কাছ ছাড়া করবে না। সৌজন্যে গুনগুনকে বুঝিয়ে বলে যে রাতে ওর ব্রেষ্ট ফিডিং এর দরকার এই শুনে গুনগুন বলে,”যখন দরকার হবে তখন আমি দিয়ে আসব।” সৌজন্যে প্রত্যুত্তরে বলে ,”তাহলে কি আমি সারারাত ঘুমাব না!” তা শুনে সৌজন্যে হিংসুটে বলে তকমা দেয় গুনগুন। কিছুতেই সে বুঝতে চায় না মায়ের মনের শূন্যতা। বৌদি ভাই তার সন্তানকে ছেড়ে থাকতে না পেরে সিদ্ধান্ত নেয় পরের দিন সকালেই বাবিনের সঙ্গে কথা বলবে সে।

MOST POPULAR ARTICLES