“আমার বডিতেই চুল্লি বানিয়ে পুড়িয়ে দিন”, ক্ষোভ প্রকাশ মুখ্যমন্ত্রীর

mamata
মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়

রাজ্য জুড়ে করোনায় মারা যাওয়া একজন রোগীর শেষকৃত্যের জন্য অশান্তির মধ্যে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় মুখ খুললেন। তিনি ক্রুদ্ধ হয়ে বললেন, আমার মৃতদেহে একটি চুল্লি তৈরি করে তা পুড়িয়ে ফেল। এই ঘটনায় তিনি বিজেপিকে কাঠগড়ায় তোলেন।

আজকের সংবাদ সম্মেলনে মুখ্যমন্ত্রী রাজ্যের বিভিন্ন অঞ্চলে করোনার রোগীদের অন্ত্যেষ্টিক্রিয়া নিয়ে বিক্ষোভ দেখিয়ে অসন্তুষ্টি প্রকাশ করেছেন। আজ, এই সম্পর্কে কথা বলতে বলতে তিনি নিজের মেজাজ হারিয়ে ফেলেন। তিনি বলেন, ইচ্ছে করে করোনায় মৃত রোগীদের সৎকার করতে বাধা দেওয়া হচ্ছে।

তিনি পদক্ষেপের বিষয়টি তুলে ধরে বলেছিলেন যে সেখানে একটি মাত্র চুল্লিতে লাশ দাফন করা হচ্ছে। ফলস্বরূপ, জানাজার জন্য দেরি হচ্ছে। নিহতদের স্বজনরা দেরিতে অস্থি পাচ্ছেন। মুখ্যমন্ত্রী আজ বলেছেন যে সরকার যাদুকর নয়। কোনও করোনার ওষুধ এখনও আবিষ্কার করা যায় নি। রাষ্ট্রীয় চিকিৎসক এবং স্বাস্থ্যকর্মীরা নিজের মতো করে চিকিত্সা করছেন। আমরা সরকার, ভগবান নই।

তিনি বলেছিলেন, কলকাতায় কোয়ারেন্টাইন সেন্টারের কোনও জায়গা নেই। প্রত্যেকে নিজের পাড়াতে কোয়ারেন্টাইন সেন্টার করতে প্রতিরোধ করছে। মুখ্যমন্ত্রী সবাইকে মানবিক হয়ে জনগণের কথা চিন্তা করার জন্য অনুরোধ করছেন। তিনি আরও বলেছিলেন যে হাসপাতাল থেকে কেউ সুস্থ হয়ে উঠলেও তিনি বিছানা ছেড়ে যেতে চান না। মুখ্যমন্ত্রী এ ব্যাপারে ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন।