কেমন হবে লকডাউন ৪.০? দেখে নিন, খুলতে পারে সেলুন এবং স্পা

মঙ্গলবার জাতিকে সম্বোধন করে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী বলেছিলেন, করোনার বিপক্ষে দেশে চতুর্থ দফায় লকডাউনের ঘটনা সম্পূর্ণ আলাদা হবে। সূত্র মতে, আগামী সোমবার থেকে সারাদেশে শুরু হতে পারে লকডাউনের চতুর্থ পর্যায়ের একাধিক মামলায় ছাড় দেওয়া হবে।

জানা গেছে, অনেক ছাড় ছাড়লেও এখন স্কুল, কলেজ ও শপিংমল চালু হচ্ছে না। নরেন্দ্র মোদী ইঙ্গিত দিয়েছিলেন যে দেশে লকডাউন বাড়ানো হবে। লকডাউন ১৮ এর আগে ঘোষণা করা হবে। তবে, প্রধানমন্ত্রী একই দিনে ইঙ্গিত দিয়েছিলেন যে চতুর্থ পর্বের লকডাউনটি সম্পূর্ণ আলাদা হতে চলেছে।

স্কুল, কলেজ এবং মল না খোলা থাকলেও সেলুন এবং স্পা খোলার বিষয়ে কঠোর বিধিনিষেধ শিথিল হতে পারে। এমনকী রেড জোনেও খোলা যাবে সেলুন, স্পা। মোদী সরকার এমন সিদ্ধান্ত নিতে চলেছে। এই দুটি পরিষেবা কন্টেইনমেন্ট অঞ্চল বাদে সব ক্ষেত্রে ছাড় দেওয়া হবে। কন্টেইনমেন্ট এরিয়া বাদে রেড জোনে চশমার দোকান খোলার জন্য ছাড় দেওয়া হতে পারে।

রাজ্যগুলিকে আজ লকডাউনের বিষয়ে তাদের মতামত কেন্দ্রে প্রেরণ করতে বলা হয়েছে। সূত্রমতে, পাঞ্জাব, পশ্চিমবঙ্গ, মহারাষ্ট্র, আসাম ও তেলঙ্গানার মতো রাজ্যগুলি লকডাউন রক্ষণাবেক্ষণের পক্ষে। তবে সকলেই লকডাউনের মাঝে অর্থনৈতিক কার্যক্রম শুরু করতে চায়।

সূত্র জানায়, ই-কমার্সে প্রয়োজনীয় পণ্য বাদে অন্য আইটেম বিক্রির জন্য ছাড় দেওয়া হবে। সূত্র জানিয়েছে যে তিনটি জোনে এই ছাড় দেওয়া হবে। অর্থাত্‍ মুদির দোকানের জিনিস ছাড়াও এবার অনলাইনে জামাকাপড়, জুতো, আসবাস কেনায় ছাড় দেওয়া হবে। এগুলি কেবলমাত্র কন্টেইনমেন্ট জোনে নিষিদ্ধ করা হবে।

লকডাউনের চতুর্থ ধাপে সমস্ত অঞ্চলকে অটো, রিকশা ও ট্যাক্সি চালকদের ছাড় দেওয়া হবে বলে জানা গেছে। যদিও একাধিক রাজ্যের গ্রিন জোনে ট্যাক্সি, সীমিত সংখ্যক বাস চালানোর অনুমতি রয়েছে। গাইডলাইন অনুসরণ করে সোমবার থেকে কলকাতায়ও বাস পরিষেবা চালু করা হবে।