চীনের ১৫ হাজার সৈনিকের জবাবে ভারত পাঠাল ৪৫ হাজার সৈনিক, ট্যাঙ্ক, সুখোই হেলিকপ্টার

ভারত দুর্দান্ত প্রস্তুতি নিচ্ছে এবং এর সংকেত পরিষ্কার। পাকিস্তানের সার্জিক্যাল স্ট্রাইক এবং বিমান হামলার চেয়েও বড় পদক্ষেপ নেওয়ার কাজ সম্ভবত শুরু হয়েছে। মনে রাখবেন, উরি হামলার কয়েকদি প্ল্যানিং এর পর সার্জিক্যাল স্ট্রাইক হয়েছিল।

একইভাবে পুলওয়ামা হামলার কয়েক দিনের মধ্যেই সেনাবাহিনী পরিকল্পনা করে পাকিস্তানের উপর বিমান হামলা চালায়। তবে এই দুটি ক্ষেত্রে সেনাবাহিনী মুভমেন্টে নজরে পড়েনি। কারণ  স্ট্রাইকের জন্য মুভমেন্টের দরকার নেই।

তবে চীনের ক্ষেত্রে ভারতের মেজাজ আলাদা। ভারতীয় সেনাবাহিনী চীনকে শিক্ষা দেওয়ার মুডে আছে। জানা গেছে, ভারতীয় সেনাবাহিনীর তিনটি ডিভিশনকে সীমান্তে পাঠানো হয়েছে। ১ টি ডিভিশন অর্থাৎ ১৫ হাজার সৈনিক, ৩ টি ডিভিশন এর অর্থ ৪৫ হাজার সৈনিক।

একই সাথে সুখোই 30 ফাইটার জেটস, তাও আবার ফুল লোডেড, আপাচি এট্যাক হেলিকপ্টার লাগানো হয়েছে। বেশ কয়েকটি ট্যাঙ্কও পাঠানো হয়েছে এমন খবর আসছে। এর আগে কখনও স্ট্রাইকের জন্য এত প্রস্তুতি হয়নি।

চীনর তরফে  15,000 সেনা মোতায়েন করা হয়েছে। এ অঞ্চলে ৪৫,০০০ ভারতীয় সেনা মোতায়েন করা হয়েছে। সেই জায়গায় পাল্টা ভারতের তরফ থেকে ৪৫ হাজার সৈনিক নিযুক্ত করা হয়েছে। হিন্দের সেনা ও ভারত সরকার তাদের কাজের মাধ্যমে স্পষ্ট ইঙ্গিত দিচ্ছে, চীনকে এবার উপযুক্ত শিক্ষা দেওয়া হবে।