রাজ্যউত্তরবঙ্গভাইরাল

রায়গঞ্জ থেকে স্পষ্টভাবে দেখা গেল কাঞ্চনজঙ্ঘা, পরিবেশ বিজ্ঞানীরা জানাল আসল কারন

আমরা সকলেই জানি দীর্ঘদিন লকডাউন থাকার ফলে আমাদের ভারত বর্ষ থেকে বায়ু দূষণ এবং শব্দ দূষণের পরিমাণ অত্যধিক মাত্রায় কমে গেছে। যেখানে প্রতিদিন প্রায় লাখ লাখ গাড়ি চলাচল করত, সেখানে প্রায় টানা ছয় মাস কোন গাড়ির চিহ্ন দেখা যায়নি। এই বিপুল পরিমাণে বায়ুদূষণ কমে যাওয়ার ফলে কিছুদিন আগেও দেখতে পেয়েছিলাম রাস্তাঘাটে ঘুরে বেড়াতে পরিযায়ী পাখিদের।

এবার কোন পশু পাখি নয়,বায়ু দূষণের মাত্রা কমে যাওয়ার ফলে একেবারে রায়গঞ্জ থেকে দেখা গেল সকলের প্রিয় কাঞ্চনজঙ্ঘা কে। গতকাল ৫ টা ৪০ মিনিটে প্রায় ১৫ মিনিট ধরে কাঞ্চনজঙ্ঘা দেখা গিয়েছে রায়গঞ্জ থেকে। পরিবেশ বিজ্ঞানীদের মতে,অত্যধিক মাত্রায় বায়ুদূষণ কমে যাওয়ার ফলে এতদূর থেকে স্পষ্ট দেখা যাচ্ছে এই পর্বত শৃঙ্গ কে।

লকডাউন চলাকালীন নাসার উপগ্রহ চিত্র জানিয়েছিল যে, প্রায় কুড়ি বছর পর ভারতের বায়ু দূষণের মাত্রা কমে গিয়েছিল এইভাবে। এর প্রধান কারণ অবশ্যই মহামারী। কথাতেই আছে সব কিছুর ভালো এবং খারাপ দিক আছে। তাই মহামারী আমাদের আরো একবার বুক ভরে নিঃশ্বাস নেবার জায়গা করে দিয়ে গেল।

02 Panchagarh Firoz Al Sabah 01722413141 715x400 1

শুধু বায়ুদূষণ কমে যাওয়ার ফলে নয়,পাশাপাশি বৃষ্টিপাতের কারণে ভারতের বাতাসে ভাসমান এরোসল এতটাই কমে গেছে যে, ভারতের আকাশ কুড়ি বছর আগের মতো নির্মল হয়ে গেছে। বায়ু দূষণের অতি ক্ষুদ্র কণা যা আমাদের আবহাওয়া মন্ডলের চাপা পড়ে থাকে দীর্ঘকাল। এই কথাগুলি কঠিন অথবা তরল গ্যাসীয় পদার্থ দিয়ে তৈরি হতে পারে।

আমরা জেনে এসেছি, ভারতের রাজধানী দিল্লি বায়ু দূষণের ক্ষেত্রে বিশ্বের মধ্যে প্রথম সারিতে রয়েছে।কিন্তু টানা লকডাউন এর ফলে সেই মাত্রাও বহু পরিমাণে কমে গেছে।লকডাউন থাকার ফলে দিল্লির বাতাসে নাইট্রোজেন অক্সাইড এর পরিমাণ রেকর্ড হারে কমে গেছে। তবে আমাদের সকলেরই উচিত, আবার জীবনযাত্রা সুস্থ এবং স্বাভাবিক হয়ে গেলে এই বায়ু দূষণের পরিমাণ যাতে কোনভাবে বেড়ে না যায়, তার দিকে যথাযথ খেয়াল রাখা।

Related Articles

Back to top button